| প্রচ্ছদ

বিন লাদেনকে ধরিয়ে দেয়া সেই ডাক্তারের সাজার বিরুদ্ধে আপিল

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪০ বার। প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০১৯ ।

আল কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেনকে খুঁজে বের করতে সহায়তাকারী ডাক্তার তার কারাদণ্ডের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন। কৌঁসুলিদের অনুরোধে ২২শে অক্টোবর পর্যন্ত মামলা মুলতবি করা হয়েছে।

প্রথমবারের মত ডা. শাকিল আফ্রিদির মামলার শুনানি হয়েছে পাকিস্তানের আদালতে। ২০১১ সালে ওসামা বিন লাদেনকে খুঁজে বের করার অভিযানে অংশ নেয়ার জন্য তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও অভিযুক্ত করা হয়নি।

প্রাথমিকভাবে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ আনা হলেও ২০১২ সালের মে মাসে তার বিরুদ্ধে নিষিদ্ধ ঘোষিত ইসলামিক জঙ্গি সংগঠন লস্কর-এ-ইসলামকে অর্থায়নের অভিযোগ আনা হয়।

স্থানীয় একটি আদালত তাকে শুরুতে ৩৩ বছরের কারাদণ্ড দিলেও পরে আবেদন সাপেক্ষে তা কমিয়ে ২৩ বছর করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রে ডা. আফ্রিদিকে বীর মনে করা হলেও পাকিস্তানে অনেকেই তাকে বিশ্বাসঘাতক মনে করেন।

ডা. আফ্রিদির ভূমিকায় পাকিস্তান তখন খুবই বিব্রত হয়েছিল। কারণ তার কারণে বাধা ছাড়াই মার্কিন নেভি সিলরা পাকিস্তানের ভেতর প্রবেশ করে টুইন টাওয়ারে বোমা হামলার মূল পরিকল্পনাকারীকে হত্যা করে তার মৃতদেহ নিয়ে পাকিস্তানের বাইরে চলে যেতে সক্ষম হয়।

এর ফলে যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানে প্রায় ৩৩ মিলিয়ন ডলার অর্থবরাদ্ধ কমিয়ে দেয়। পেশোয়ার হাই কোর্টের দেয়া কারাদণ্ড অনুযায়ী ড. আফ্রিদির প্রতি বছর কারাভোগের জন্য ১ মিলিয়ন ডলার পরিমাণ অর্থ সাহায্য কমিয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

২০১৬ সালের নির্বাচনী প্রচারণায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে তিনি নির্বাচিত হলে ‘দুই মিনিটে’ ডা. আফ্রিদিকে ছাড়ানোর ব্যবস্থা করবেন, কিন্তু বাস্তবে তেমনটা হয়নি।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

মন্তব্য