| প্রচ্ছদ

কাশ্মীরে সাবেক মুখ্যমন্ত্রীর মেয়ে-বোনসহ নারীকর্মী আটক

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩১ বার। প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০১৯ ।

জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহর মেয়ে, বোনসহ উপত্যকাটির বেশ কয়েকজন সুপরিচিত নারীকর্মী ও শীর্ষস্থানীয় শিক্ষাবিদকে আটক করেছে ভারতীয় পুলিশ। মঙ্গলবার শ্রীনগরে বিক্ষোভ প্রদর্শনের চেষ্টারত অবস্থায় তাদের আটক করা হয়।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহর মেয়ে, বোনসহ উপত্যকাটির বেশ কয়েকজন শিক্ষাবিদ।

এদিন লাল চকের কাছে প্রতাপ পার্কে নানা ধরনের প্ল্যাকার্ড নিয়ে হাজির হন আন্দোলনকারীরা। বিক্ষোভ শুরু হওয়া মাত্রই পুলিশ তাদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং এক ডজনেরও বেশি নারীকে আটক করে। পরে তাদের স্থানীয় থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

আটককৃতদের মধ্যে ফারুক আবদুল্লাহর বোন সুরাইয়া আবদুল্লাহ, তার মেয়ে সাফিয়া আবদুল্লাহ খান এবং জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক প্রধান বিচারপতি বশির আহমেদ খানের স্ত্রী হাওয়া বশিরও রয়েছেন।

এর আগে জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিলের পর থেকে কঠোর জননিরাপত্তা আইনে উপত্যকাটির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ এবং তার ছেলে ওমর আবদুল্লাহকে আটক করে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

পাশাপাশি মেহবুবা মুফতি সহ রাজ্যের কয়েকশ রাজনৈতিক নেতাকেও ৫ আগস্টের পর থেকে আটক বা গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। গত ৫ আগস্ট সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদে রদ করে রাজ্যটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার।

মন্তব্য