| প্রচ্ছদ

জয়পুরহাটে খালি ড্রাম কাটার সময় বিস্ফোরণে যুবক নিহত

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৫৩ বার। প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০১৯ ।

জয়পুরহাটের সদরে একটি ওয়েল্ডিংয়ের দোকানে (ওয়ার্কশপে) পুরনো মুখবন্ধ খালি ড্রামের ঢাকনা (মুখ) কাটার সময় ওই ড্রামের ভেতরে সৃষ্ট গ্যাসের বিস্ফোরণে জহুরুল ইসলাম (৩১) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার উপজেলার কুঠিবাড়ি ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওয়ার্কশপের মালিক সাদ্দাম হোসেন গুরুতর আহত হন।

নিহত জহুরুল ইসলাম ওই এলাকার উত্তর-জয়পুর গ্রামের মৃত শুভ মণ্ডলের ছেলে। তিনি ওই ওয়ার্কশপে ওয়েল্ডিং শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জয়পুরহাট থানার ওসি (তদন্ত) মো. রায়হান হোসেন জানান, মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে এক ব্যক্তি (কাস্টমার) ওই ওয়ার্কশপে গিয়ে একটি খালি তেলের ড্রাম দিয়ে চাল রাখার জন্য ওই ড্রামের মুখ কাটার অর্ডার দেন। ওই অর্ডার অনুযায়ী, ওই ওয়ার্কশপের মালিকের নির্দেশে ওয়েল্ডিং শ্রমিক জহুরুল ইসলাম ড্রামটির মুখ (ঢাকনা) কাটার কাজ শুরু করেন।

কিন্তু ঢাকনা করার জন্য ড্রামের মুখ কাটার কাজ শুরু করার পর পরই হঠাৎ বিকট শব্দে ড্রামটির ভেতরে সৃষ্ট গ্যাসের প্রচণ্ড বিস্ফোরণে ড্রামের কাটা অংশ উড়ে যায়। এ বিস্ফোরণের ফলে ওয়েল্ডিং শ্রমিক জহুরুল ইসলামের মুখ ও তার মাথার একাংশ অংশ উড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এ সময় ওয়ার্কশপের ভেতরে বসা ওয়ার্কশপের মালিক সাদ্দাম হোসেন গুরুত্বর আহত হন। বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শুনে স্থানীয়রা দ্রুত সেখানে ছুটে গিয়ে আহত সাদ্দাম হোসেনকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করিয়ে দেন।

ওসি আরও জানান, এ ব্যাপারে জয়পুরহাট থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা (ইউডি মামলা) দায়ের করা হয়েছে। কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকায় ওয়েল্ডিং শ্রমিক জহুরুল ইসলামের লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য