| প্রচ্ছদ

বগুড়ার শেরপুরে ইসলামী মহাসম্মেলন

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৩৫ বার। প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০১৯ ।

গোটা পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশের মানুষ সবচেয়ে বেশি ধর্মভীরু। এদেশের ৯০’ভাগ মানুষ মুসলমান। সেই দেশে ইসলামী সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকতে পারে না। এ ধরণের কর্মকা- বন্ধ করুন। ইসলাম নিয়ে কোন ছিনিমিনি খেলতে দেয়া হবে না। নাস্তিক-মুরতাদদের যে কোন ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় এই দেশের মুসলমানরা প্রস্তুত রয়েছে। প্রয়োজনে তাঁরা জীবন দেবে, তবুও তাদের সঙ্গে কোন আপোষ করবে না। সোমবার রাতে বগুড়ার শেরপুরে স্থানীয় ওলামায়ে কেরামদের উদ্যোগে আয়োজিত ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব এসব কথা বলেন।
মাওলানা এজাজ আহমদের সভাপতিত্বে শেরপুর ডিজে হাইস্কুল খেলার মাঠে আয়োজিত সম্মেলনে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা জুনায়েদ আল হাবিব দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ইসলামী রাজনীতি নিষিদ্ধ করার চক্রান্ত চলছে উল্লেখ করে আরও বলেন, যেদেশের মানুষ সবচেয়ে বেশি ধর্মপ্রাণ। যারা আল্লাহ ও রাসুলের জন্য বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেয়। সেই দেশের বিশ^বিদ্যালগুলোতে ইসলামী রাজনীতি বন্ধের ষড়যন্ত্র মেনে নেয়া হবে না। দেশের কিছু জ্ঞান পাপী লোক আছে, তারা বলে ধর্ম যার যার আর উৎসব সবার। এটি সম্পুর্ণ ইসলামের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এই কথাটি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করলে ইমান থাকবে না। এছাড়া তারা কওমী মাদ্রাসা সম্পর্কেও নানা অপপ্রচার চালায়। তাদের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি আরও বলেন, এখনও সময় আছে সাবধান হয়ে যান। ইসলাম বিরোধী কর্মকা- বন্ধ করুন। অন্যথায় আবারও আল্লাহ ও রাসুলের মর্যাদা রক্ষায় হেফাজতের লাখ লাখ নেতাকর্মী মাঠে নামবে।
উক্ত সমাবেশে প্রধান আলোচক ছিলেন রাবেতা ওয়াজীন বাংলাদেশের সভাপতি মাওলানা আব্দুল বাছেদ, স্থানীয় আয়োজক কমিটির নেতা মাওলনা মাহমুদুল হাসান লিটন, হাফেজ আব্দুর রহমান, মাওলানা রুহুল আমিন, আবু রায়হান, জামিল উদ্দীন, রাশেদুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

মন্তব্য