| প্রচ্ছদ

ভিন্নমত পোষণ করলেই তাকে হত্যা করা হয়: মওদুদ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৫ বার। প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ।

বাংলাদেশে ভিন্নমত পোষণকারীদের পরিণতি কী হয় সেটা বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার মাধ্যমে বিশ্ব জানতে পেরেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। খবর যুগান্তর অনলাইন 

শনিবার এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, সরকার নিজেদের উন্নয়নের রোল মডেল বলেন। তারা হচ্ছে, বিনাভোটের নির্বাচন করা, গণতন্ত্র হত্যা করা, দুর্নীতি ও বিচার ব্যবস্থায় নগ্ন হস্তক্ষেপ করার রোল মডেল। রাজপথে আন্দোলন ছাড়া খালেদা জিয়া এবং গণতন্ত্র মুক্তি পাবে না বলেও জানান মওদুদ।

আগ্রাসী শক্তির বিরুদ্ধে প্রথম প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর আবরার ফাহাদ এবং শিশু ও নারীসহ সব নির্যাতনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে বাংলাদেশ নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের উদ্যোগে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ফোরামের আহ্বায়ক বেগম সেলিমা রহমানের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস-চেয়ারম্যান খন্দকার মাহাবুব হোসেন, নিতাই চন্দ্র রায়, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদিন, ডা. এ জেড এম জাহিদ, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আসিফ নজরুল, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন প্রমুখ।

মওদুদ বলেন, এই সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য শুধু দিয়েছে- দেশের জন্য কিছু আনতে পারে নাই। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- আমি দেশের কোনো স্বার্থ বিক্রি করিনি। তাহলে ফেনী নদীতে আপনি পানি দিয়ে এসেছেন এতে দেশের স্বার্থ নষ্ট হয়নি?

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কখনওই প্যারোলে মুক্ত হবেন না। তিনি কখনওই প্যারোল চাইবেন না। যারা প্যারোলের কথা বলছেন তারা হয়তো না বুঝে বলছেন অথবা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বলছেন।

মওদুদ বলেন, রাজপথের আন্দোলন ছাড়া কোনো স্বৈরাচারী সরকারের পতন হয়নি। স্বৈরাচার পতনের একমাত্র উপায় রাজপথে আন্দোলন। রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমেই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে।

মন্তব্য