| প্রচ্ছদ

শেখ হাসিনাকে আজীবন প্রধানমন্ত্রী করার দাবি

শাজাহানপুরে নৌকা বাইচে কয়েক হাজার দর্শকের মিলনমেলা

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৯৪ বার। প্রকাশ: ২০ অক্টোবর ২০১৯ ।

গ্রাম-বাংলার প্রাচীন ঐতিহ্য নৌকা বাইচের আনন্দ উপভোগ করতে রোববার বগুড়া সদর, গাবতলী, ধুনট ও শাজাহানপুর উপজেলার প্রায় ৩০ হাজার সংস্কৃতি প্রেমী মানুষ ভির করেছিল শাজাহানপুরের খারুয়া নামক একটি খালের দু’ধারে। 
খোট্টাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা যৌথ ভাবে উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু এবং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক সোহরাব হোসেন ছান্নু। প্রতিযোগিতায় গাবতলী উপজেলার ৪টি, ধুনট উপজেলার ২টি এবং শাজাহানপুর উপজেলার ১টি সহ মোট ৭টি নৌকা অংশ নেয়। এর মধ্যে গতকাল উদ্বোধনী রাউন্ডে বিজয়ী হয়ে আজ সোমবার চুড়ান্ত রাউন্ডে অংশ নেয়ার সুযোগ পেয়েছে ধুনটের নৌ-রাজ ও সোনার তরী, গাবতলীর পঙ্খীরাজ এবং শাজাহানপুরের সোনার বাংলা নামের ৪টি নৌকা।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বাঙ্গালীর প্রাচীন ঐতিহ্যকে ধারণ করে গ্রামীণ খেলাধূলার চর্চা পাড়া মহল্লায় ছড়িয়ে দিতে হবে। তাহলে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা পাবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে এবং বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে আজীবন প্রধানমন্ত্রী করার দাবি জানান প্রধান অতিথি আসাদুর রহমান দুলু। খোট্টাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ্ আল ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দীন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তালেবুল ইসলাম, সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক মাস্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মোল্লা, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান।

এ.এস.এম ফেরদৌসের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চোপীনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান, খোট্টাপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি গাজীউল হক, সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন দুদু, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বাদশা আলমগীর, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান লিটন, সরকারি শাহ্ সুলতান কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আতিকুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক মিন্টু মিয়া, সহ-সভাপতি রুবেল ইসলাম, শহর স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মোতাহার ইসলাম মিজু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, নৌকা বাইচ কে ঘিরে খোট্টাপাড়ার নারিল্যা গ্রাম ও এর আশপাশের প্রায় বাড়িতে ভির করেছে নাইওরি। গতকাল দুপুর থেকেই খারুয়া খালের দু’ধারে নারী-পুরুষ ও শিশু-কিশোররা জড়ো হতে থাকে। সংবাদ ছড়িয়ে পড়ায় ৩টার মধ্যে শাজাহানপুর ছাড়াও বগুড়া সদর উপজেলা, ধুনট উপজেলা ও গাবতলী উপজেলার প্রায় ৩০ হাজার উৎসুক মানুষের মিলন মেলায় খারুয়া খালের দু’পাড় ছেয়ে যায়। খালের দু’পাড়েই বসেছিল মেলা। শিশুদের জন্য নাগর দোলাসহ নানা রকমের বিনোদনের ব্যবস্থাও ছিল উপভোগ করার মতো।  

মন্তব্য