| প্রচ্ছদ

রাতে দেরিতে বাড়ি ফেরায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩১ বার। প্রকাশ: ২২ অক্টোবর ২০১৯ ।

রাতে বাড়িতে দেরিতে আসায় ফেনীর দাগনভুঞায় ছালা উদ্দিন মিস্টার (৪২) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ ওঠেছে তার স্ত্রী কাজল বেগমের বিরুদ্ধে (৩০)। এ ঘটনায় স্ত্রী’র বিরুদ্ধে মামলা করেছেন স্বামী ছালা উদ্দিন মিস্টার। খবর সমকাল অনলাইন 

ছালা উদ্দিন মিস্টারের ভাই আনোয়ার হোসেন জানান, গত ১১ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে পরিবারের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে ছালা উদ্দিন মিষ্টার বাড়িতে ঢুকে ঘরের দরজা খুলে দেয়ার জন্য বলে স্ত্রীকে। পরে তাদের মেয়ে ঘরের দরজা খুলে দেয়। এমন সময় দেরিতে কেন এসেছে এমন অজুহাত তুললে স্বামী-স্ত্রী দুজনের মধ্যে বাক-বিতণ্ডা শুরু হয়। বাক-বিতণ্ডার এক পর্যায়ে স্ত্রী কাজল বেগম বটি দিয়ে স্বামী ছালা উদ্দিনকে এলোপাতাড়ি মুখে ও ঘাড়ে পরপর কয়েকবার কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। ছালা উদ্দিনের মুখের বাম পাশের একটি দাঁত পড়ে যায় এবং দুইটি দাঁত ভেঙে যায়। তাকে উদ্ধার করে দাগনভুঞা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পাঠান। তার অবস্থা আরো অবনতি হলে ফেনী থেকে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন ছালা উদ্দিন। 

১১ অক্টোবরের এ ঘটনায় সোমবার দাগনভুঞা থানায় মামলা করতে যান ছালা উদ্দিন মিস্টারের ভাই আনোয়ার হোসেন। তখনই এ ঘটনা সবার নজরে আসে। ছালা উদ্দিন মিস্টারের স্ত্রী কাজল বেগমকে আসামি করে সোমবার মামলা দায়ের করেন আনোয়ার হোসেন। মামলায় বাদি হয়েছেন ছালা উদ্দিন মিস্টার।

দাগনভুঞা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আসলাম সিকদার বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ওই গৃহবধূকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য