| প্রচ্ছদ

ভারত সফরে তামিমের জায়গায় ইমরুল

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৫ বার। প্রকাশ: ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ।

সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতেই ভারত সফরে ছুটি নিয়েছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। খবর যুগান্তর অনলাইন

কলকাতায় আগামী ২২ নভেম্বর থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় টেস্ট। আর তামিম সেই সময় দ্বিতীয় সন্তানের মুখ দেখার অপেক্ষায় থাকবেন। সময় দেবেন স্ত্রীকে।

সঙ্গত কারণেই ভারত সফরে থাকছেন না এই ড্যাশিং টাইগার ওপেনার।

বিসিবি সূত্র জানিয়েছে, ভারত সফরের তিন ম্যাচ টি–টোয়েন্টি সিরিজে তামিমের জায়গায় ইমরুল কায়েসকে দেখা যেতে পারে।

ইতিমধ্যে ইমরুলকে ভারত সফরের জন্য প্রস্তুতি নিতে বলেছেন নির্বাচকরা।

তবে টেস্ট সিরিজে ইমরুলকে রাখা হবে কিনা, তা এখনও নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি।

এদিকে ভারত সফর থেকে ছিটকে পড়েছেন দলের উদীয়মান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

চোটের কারণে সাইফউদ্দিন এখন বিশ্রামে। তামিমের বদলি ইমরুলের কথা শোনা গেলেও সাইফউদ্দিনের বদলি হিসেবে কারও নাম এখনও জানায়নি বিসিবি।

ভারত সফরে যে তামিম যেতে পারবেন না, তার একটি ইঙ্গিত আগেই নির্বাচকদের দিয়ে রেখেছিলেন তামিম।

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন, ‘তামিম আমাদের আগেও জানিয়েছে, দ্বিতীয় টেস্টে সে নাও খেলতে পারে। কিন্তু এখন জানা গেছে, আগামী সপ্তাহগুলোয় তাকে স্ত্রীর সঙ্গে থাকতে হবে।’

দলের সঙ্গে যুক্ত না থাকতে পারাকে হতাশার বলে মন্তব্য করেছেন তামিম ইকবাল।

তিনি বলেন, আমার মনে হয়, মানুষের জীবনের এই সময়গুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা এমনিতেই অনেকটা সময় পরিবার থেকে দূরে থাকি। পরিবারের সদস্যদের অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। এখন এই সময়টাও যদি স্ত্রীর পাশে থাকতে না পারি, তা হলে সেটি তার প্রতি, পরিবারের প্রতি অন্যায় হয়। এই সময়টুকু অন্তত ওদের প্রাপ্য।

এ ছাড়া ভিন্ন কারণও দেখিয়েছেন তামিম। ক্রিকেটে ইদানীং তেমন একটা নিয়মিত নন তিনি।

গত বিশ্বকাপ শেষে ক্রিকেট থেকে কিছুদিনের ছুটি নেন তিনি। বিশ্বকাপেও তার ব্যাট কথা বলেনি। অনেক দিন বিশ্রামের পর অক্টোবরেই জাতীয় লিগ দিয়ে ফিরেছিলেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে। চট্টগ্রামের হয়ে জাতীয় লিগে খেলেছেন। এরই মধ্যে চোটও পান।

আবার টানা দুই-তিন সপ্তাহ বিশ্রামে থাকতে হয় তাকে।

তামিম বলেন, টানা দুই-তিন সপ্তাহ ক্রিকেটে না থেকে হুট করে খেলা হয়তো কঠিন হবে। আপাতত তাই এই সফরে খেলার কোনো সুযোগ দেখছি না।

প্রসঙ্গত ৩০ অক্টোবর ভারত সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। ৩ নভেম্বর থেকে শুরু তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ১৪ নভেম্বর ইন্দোরে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। কলকাতায় দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট গড়াবে ২২ নভেম্বর।

মন্তব্য