| প্রচ্ছদ

শাজাহানপুরে মসজিদের জায়গা দখলের অভিযোগ

শাজাহানপুর (বগুড়া) সংবাদদাতা
পঠিত হয়েছে ৬১ বার। প্রকাশ: ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ।

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার বামুনীয়া মন্ডলপাড়া বায়তুস্ সালাম জামে মসজিদের জায়গা দখল করে ইটের স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে মর্মে অভিযোগ উঠেছে। সংবাদ পেয়ে গতকাল রোববার দুপুরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এ ঘটনায় মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং শাজাহানপুর থানায় পৃথক পৃথক অভিযোগ দায়ের করেছেন।
মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন, বামুনীয় মন্ডলপাড়া গ্রামের মরহুম ইসমাইল মন্ডল তার জীবদ্দশায় ১৯৬১ সালে বামুনীয়া মৌজার ২৪৫৯, ২৪৭১ এবং ২৭৭২ দাগের মোট ৯৫ শতক জমি মসজিদের নামে ওসিয়তনামা দলিল করে দিয়েছেন। ওসিয়ত নামায় বলা হয়েছে, মৃত্যুর পর তার অন্তিষ্টিক্রিয়ার খরচ এবং দায়দেনা পরিশোধ অন্তে ওই জমির আয় থেকে মসজিদ পরিচালনার ব্যয়ভার বহন করতে হবে। কিন্তু ইসমাইল মন্ডলের মৃত্যুর পর থেকে অদ্যাবধি তার ওয়ারিশগণ মসজিদের কোন ব্যয়ভার গ্রহন করেননি। বরং নিজেরা আত্মসাত করে আসছেন। এমনকি ২০০১ সালে মৃত ইসমাইল মন্ডলের ছেলে রজিবর রহমান মন্ডল তার পুত্র লুৎফর রহমান ও সামছুর রহমানের নামে ওই জমি দলিল করে দেন। বর্তমানে ২৭৭২ দাগের ৫৭ শতকের মধ্যে ৩৩ শতক জমির উপর ইটের স্থাপনা নির্মাণের চেষ্টা করলে গত ১৭ অক্টোবর মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে পৃথক পৃথক ভাবে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। 
এ বিষয়ে লুৎফর রহমানের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘মোবাইলে কথা বলার মত সময় নাই। তার সময় মত সাক্ষাতে কথা বলতে হবে।’
শাজাহানপুর থানার এসআই শাজাহান আলী জানিয়েছেন, মসজিদের জমি জবর দখলের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থালে হাজির হই এবং আইন-শৃংখলা রক্ষার্থে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। পরবর্তিতে উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে সুষ্ঠ সমাধানের পর নির্মাণ কাজ করতে বলা হয়েছে।

মন্তব্য