| প্রচ্ছদ

আত্রাইয়ে ৮বিঘা জমির চিনি আতপ ধানে বিষ প্রয়োগে নষ্ট করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

নওগাঁ প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৪০ বার। প্রকাশ: ৩০ অক্টোবর ২০১৯ ।

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার মনিয়ারী ইউনিয়নের নগেন্দ্রনগর গ্রামের মাঠে আব্দুর রাজ্জাক নামে এক কৃষকের ৮বিঘা জমির চিনি আতপ ধানে বিষ প্রয়োগে নষ্ট করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা । এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার, আত্রাই থানা ও উপজেলা কৃষি অফিসার বরাবর পৃথক লিখিত অভিযোগ করেছেন।  বুধবার উপজেলা কৃষি অফিসার সরজমিন ক্ষতিগ্রস্থ ধানের জমি পরিদর্শন করে এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এদিকে এই ঘটনায় ওই কৃষক হতাশ হয়ে পড়েছেন।


অভিযোগে জানা গেছে নগেন্দ্রনগর গ্রামের কৃষক আব্দুর রাজ্জাক গত আড়াই মাস পূর্বে তার ৮ বিঘা জমিতে হালচাষ করে বিআর-৩৪ জাতের (চিনি আতপ) আমন ধান রোপন করেন। নিয়মিত পরিচর্যায় সম্প্রতি ধানের শীষ বের হতে থাকে। ধানের শীষ দেখে কৃষকের মনে বুকভরা আশা জেগে উঠে। এ ধান গোলায় উঠবে, ধান বিক্রি করে পরিবারের ভরণ-পোষণসহ বিভিন্ন প্রয়োজন মিটানো হবে। কিন্তু না তার সব আশা-আকাঙ্খা ধুলোয় মিশিয়ে দিল দুর্বৃত্তরা। গত সোমবার রাতের অন্ধকারে ৮ বিঘা শীষযুক্ত ধানের উপর আগাছা নাশক বিষ প্রয়োগ করে সমুদয় ধানের গাছ মেরে ফেলা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে জমিতে গিয়ে ধানের এ পরিনতি দেখে হতাশায় ভেঙ্গে পরেন কৃষক আব্দুর রাজ্জাক।


উপজেলা কৃষি অফিসার কেএম কাউছার হোসেন বলেন,  বুধবার আমি সরে জমিনে গিয়ে ছিলাম। যা দেখলাম কোন মানুষ মানুষের এমন ক্ষতি করতে পারে না। সবেমাত্র ধানের শীষ বের হয়েছে, ধানগুলো সম্ভাবনাময় হয়ে দেখা দিয়েছে। এমন ধান বিষ প্রয়োগ করে নষ্ট করা এটা কোন শত্রুতা ? আত্রাই থানার ওসি মোসলেম উদ্দিন বলেন, কৃষক আব্দুর রাজ্জাকের সাথে মসজিদ ও ঈদগাহের কমিটি সংক্রান্ত কিছু বিরোধ তার গ্রামের লোকজনের রয়েছে। তারপরও সবকিছু সামনে রেখে তদন্ত করা হচ্ছে। দোষি ব্যক্তিদের অবশ্যই আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।
 

মন্তব্য