| প্রচ্ছদ

'অনুশীলনের সুযোগ পাবেন সাকিব'

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪২ বার। প্রকাশ: ৩১ অক্টোবর ২০১৯ ।

জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় সাকিব আল হাসানকে প্রাথমিকভাবে দুই বছর সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। তবে তিনি দায় স্বীকার করে নেয়ায় এক বছর নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করা হয়েছে। অবশ্য এই সময়ে ফের অপরাধ করলে আগের শাস্তিই বহাল থাকবে তার। খবর যুগান্তর অনলাইন

আইসিসির এ ঘোষণা আসার পর কার্যত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সঙ্গে সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে গেছে সাকিবের। অটোমেটিক কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়েছেন তিনি। ফলে বোর্ড থেকে কোনো ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবেন না অন্যতম এ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তবে তাকে অনুশীলনের সুযোগ করে দেবে বিসিবি।

নিষেধাজ্ঞার এক বছর পর সাকিবকে স্বরূপে ফেরত চায় বাংলাদেশ। মূলত তাকে প্রস্তুত রাখতে এ উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, দেশের কোনো নিষিদ্ধ ক্রিকেটারের ট্রেনিংয়ের সুযোগ করে দেয়া একান্ত বিসিবির ব্যাপার বলেই আমরা জানি। এখানে আইসিসি বা বাইরের কারও হাত থাকে না। সেই সুযোগ আমরা সাকিবকে দেব।

তিনি বলেন, অবশ্য কোনো দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে পারবে না সাকিব। এখানে বিশ্ব ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থার নিষেধ আছে। তবে তাকে আলাদা করে ট্রেনিং করার সুযোগ করে দেব আমরা। দেশের ক্রিকেটের স্বার্থেই সুযোগটা পাবে সে। আমরা চাই ও নিজেকে প্রস্তুত রাখুক। এক বছর পর তার নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে। তখন যেন মাঠে নামতে প্রস্তুত থাকে সে।

মন্তব্য