| প্রচ্ছদ

সৌদি যুবরাজের সঙ্গে লিন্ডসের সম্পর্ক যা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩০ বার। প্রকাশ: ৩১ অক্টোবর ২০১৯ ।

মার্কিন অভিনেত্রী ও গায়িকা লিন্ডসে লোহানের বাবা মাইকেল লোহান বলেছেন, তাঁর মেয়ের সঙ্গে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের শ্রদ্ধার সম্পর্ক রয়েছে। এতে কামনা–বাসনা নেই। তাঁরা ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’।  খবর প্রথম আলো অনলাইন

লিন্ডসে লোহানের সঙ্গে মোহাম্মদ বিন সালমানের সম্পর্ক নিয়ে ট্যাবলয়েডে প্রকাশিত জল্পনামূলক খবরের পরিপ্রেক্ষিতে এই কথা বলেন মাইকেল লোহান। গতকাল বুধবার যুক্তরাজ্যের দ্য ইনডিপেনডেন্ট অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

‘মিন গার্লস’ তারকা লিন্ডসে লোহানকে মোহাম্মদ বিন সালমান একটি ক্রেডিট কার্ডসহ বিভিন্ন উপহার দিয়েছেন বলে খবর বেরিয়েছে।

গত আগস্টে লিন্ডসে লোহানের এক প্রতিনিধি সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেন, এই মার্কিন তারকার সঙ্গে সৌদি যুবরাজের কোনো রোমান্টিক সম্পর্ক নেই। আর তাঁদের মধ্যে কোনো ক্রেডিট কার্ডও বিনিময় হয়নি।

চলতি সপ্তাহে নিউইয়র্ক পোস্টের কাছে একই দাবি করেন লিন্ডসে লোহানের বাবা মাইকেল লোহান। মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে লিন্ডসে লোহানের কোনো ধরনের রোমান্টিক সম্পর্ক থাকার কথা তিনি অস্বীকার করেন।

মোহাম্মদ বিন সালমান ও লিন্ডসে লোহানের সম্পর্ক নিয়ে মাইকেল লোহান বলেন, তাঁরা শুধুই বন্ধু (জাস্ট ফ্রেন্ড)। মধ্যপ্রাচ্যে লিন্ডসে লোহানের অনেক ক্ষমতাধর বন্ধু রয়েছে। কারণ, তিনি সেখানে কাজ করেন, যাওয়া-আসা করেন। মধ্যপ্রাচ্যে লিন্ডসে লোহান যেসব কাজ করছেন, সেই সুবাদে তিনি মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে দেখা করেছেন। লিন্ডসে লোহান অঞ্চলটির (মধ্যপ্রাচ্য) লোকজন, বিশেষ করে শরণার্থীদের সহায়তায় কাজ করছেন।

মাইকেল লোহান বলেন, লিন্ডসে লোহান সিরিয়ায় যেসব ভালো কাজ করেছেন, তা নিয়ে কেউ লিখছে না। তারা শুধু বাজে কথা শুনতে চায়। মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে লিন্ডসে লোহানের নিষ্কাম ও শ্রদ্ধার সম্পর্ক রয়েছে। তার চেয়ে বেশি কিছু নয়।

সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যায় সৌদি যুবরাজের সম্পৃক্ততার অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে মাইকেল লোহান বলেন, এখন পর্যন্ত কোনো কিছুই প্রমাণিত হয়নি। তাঁর মেয়ে লিন্ডসে লোহান বলেছেন, মোহাম্মদ বিন সালমান একজন ভালো মানুষ।

মন্তব্য