| প্রচ্ছদ

প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিতের ঘটনায় ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ শিক্ষার্থীদের

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৪৬ বার। প্রকাশ: ০৬ নভেম্বর ২০১৯ ।

বগুড়ার নন্দীগ্রামে প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ করেছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকালে উপজেলার খেংসর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, খেংসর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৪৬ শতক জায়গা রয়েছে। সে জায়গার ১৪ শতক নিজের সম্পত্তি বলে দাবি করে কামাল সরদার। ওই জায়গা নিয়ে দুই বছর ধরে মামলা চলছে। সম্প্রতি প্রধান শিক্ষক লাইব্রেরি কক্ষে টাঙানো দাতা সদস্যদের বোর্ড নামিয়ে ফেলেন। সেই বোর্ডে দাতা সদস্য হিসেবে কামাল সরদারের বাবা মরহুম তমেজ উদ্দিনের নামও ছিল।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে কামাল সরদার স্কুলের লাইব্রেরি কক্ষে দাতা সদস্যদের নামের তালিকা বোর্ড নিচে নামানো দেখে প্রধান শিক্ষককে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন। একপর্যায়ে প্রধান শিক্ষককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন তিনি। তাৎক্ষণিকভাবে এই খবর ছড়িয়ে পড়লে স্কুলের শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ শুরু করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক বলেন, 'স্কুলের বোর্ডে দাতা সদস্যদের নাম সংশোধন করার জন্য নিচে নামানো হয়েছিল। এজন্য কামাল সরদার আমাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে। এর প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন ও শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেছে।'

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার বলেন, 'প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনা খুব দুঃখজনক। বিষয়টি জানার পর উভায়কে ডাকা হলে কামাল সরদার প্রধান শিক্ষকের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে। পরে প্রধান শিক্ষকও তাকে ক্ষমা করে দেয়।' 

মন্তব্য