| প্রচ্ছদ

নওগাঁর সাপাহারে ৮ হাজার আম গাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

নওগাঁ(বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১১৪ বার। প্রকাশ: ১৩ নভেম্বর ২০১৯ ।

নওগাঁর সাপাহারে শত্রুতা করে ১২ জন আমচাষীর প্রায় ৬০ বিঘা জমির উপর রোপিত অনুমান ৮ হাজার আম গাছ কেটে সাবাড় করেছে দুর্বৃত্তরা। এঘটনায় প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে আম চাষিরা জানিয়েছেন।
খবর পেয়ে  বুধবার বিকেলে সাপাহার উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কল্যান চৌধুরী ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। 
জানা গেছে বুধবার ভোরের দিকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তের দল উপজেলার জামালপুর গ্রামের পশ্চিম-দক্ষিন পার্শ্বে বিশাল মাঠে রোপিত একাধিক ব্যক্তির ৬০বিঘা জমির রোপিত প্রায় ৮হাজার আমগাছ কেটে সাবাড় করেছে। সকালে বাগানের মালিকগণ বাগান এলাকায় গিয়ে গাছকাটার দৃশ্য দেখে অবাক হয়ে যান। এরপর সংবাদ জানাজানি হলে এলাকার শত শত উৎসুক জনতা এক নজর দেখার জন্য ওই বাগান এলাকায় ভিড় জমায়। কে বা কারা এসব গাছ কেটে ফেলেছে এবিষয়ে বাগান মালিকদের সাথে কথা হলে তারা জানান সামনের সিজনে প্রায় সব গাছগুলোতে আম আসত। আমের সিজনের পূর্ব মহুর্তে কে বা কারা এবং কেন তাদের বাগানের গাছগুলি কেটে ফেলেছে তার কোন কারণ আমাদের জানা নেই।

তবে কোন বাগান মালিকের সাথে কারো শত্রুতা থাকতে পারে, দুর্বৃত্তরা চতুর হওয়ায় তাদের যেন কেউ সনাক্ত করতে না পারে তাই হয়ত তারা তার শত্রু পক্ষের ক্ষতি করতে গিয়ে নিজেদের বাঁচানোর তাগিতে কৌশল হিসেবে অন্যেরও গাছ কেটে ফেলেছে এমনটাই মনে করছেন তারা। উপজেলার আমচাষীরা ধারণা করছেন কেটে ফেলা আমগাছগুলি হতে আগামী আমের মৌসুমে প্রায় ১কোটি টাকার আম কেনা-বেচা হত। হঠাৎ করে বিরাট ধরণের ক্ষতি সাধন হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ বাগান মালিকগণ চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। রাতের আাঁধারে বাগান হতে অসংখ্য আমগাছ কর্তন করায় উপজেলার আমচাষীরা শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। উপজেলার হাজার হাজার আমচাষীরা গাছের সাথে শত্রুতাকারীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্ত মুলক শস্তির দাবী জানিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন। 
 

উপজেলা নিবার্হী অফিসার কল্যাণ চৌধুরী বলেন, এই ঘটনা যে ঘটিয়েছে তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। ঘটনা তদন্ত করে দ্রুত অপরাধীদের গ্রেফতার করার জন্য থানার ওসিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। 

মন্তব্য