| প্রচ্ছদ

গোলাপি টেস্ট: চতুর্থ ও পঞ্চম দিনের টিকিটের টাকা ফেরত দেয়া হবে কি?

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৮৯ বার। প্রকাশ: ২৫ নভেম্বর ২০১৯ ।

প্রথম ঐতিহাসিক গোলাপি টেস্ট শেষ হতে আড়াই দিনও লাগল না । তৃতীয় দিনে ৪৭ মিনিটেই ভারতীয় পেসারদের তোপে কুপোকাত টাইগাররা।

অথচ এই টেস্টকে ঘিরে কত কিছুই না পরিকল্পনা নিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) নতুন সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।

পুরো কলকাতা শহর মুড়ে ফেলা হয়েছিল গোলাপি ক্যানভাসে। নিমন্ত্রণ করা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘণ্টা বাজিয়ে গোলাপি বলের প্রথম দিবা-রাত্রি টেস্ট উদ্বোধন করলেন তিনি।

উপমহাদেশের মাটিতে প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্টটিকে স্মরণীয় করে রাখার এতোসব আয়োজনে সাড়া দিয়েছিল কলকাতার ক্রিকেটপ্রেমীরাও।

যে কারণে ম্যাচ শুরুর চারদিন আগেই প্রথম চারদিনের সব টিকিট কিনে নিয়েছিল ক্রীড়ামোদিরা। বিক্রি হয়েছিল পঞ্চমদিনের টিকিটও। গোলাপি বলের স্বাদ নিতে উৎসুক ছিলেন তারা। আর সেই টেস্টের তৃতীয় দিনে মাঠে গোলাপি বল গড়ায়নি ১ ঘণ্টাও।

রোববার খেলা শেষের পর সৌরভ গাঙ্গুলী জানান, সোমবারও ইডেন হাউসফুল হত। কারণ সব টিকিট আগেই বিক্রি হয়েছে।

জানা গেছে, প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের টিকিট যারা পাননি, টিভি সেটের সামনে বসেই খেলা উপভোগ করেছেন তাদের অনেকেই ৪র্থ ও ৫ম দিনের টিকিট কিনেছেন।

আর এসব ক্রিকেটপ্রেমীদের হতাশ করল মমিনুলরা। পিংক টেস্টের সাক্ষী হতে পারল না তারা। স্বভাবতই হতাশা গ্রাস করেছে এসব ক্রীড়ামোদিদের।

প্রশ্ন এসেছে, খেলাই যখন শেষ হয়ে গেল ৪র্থ ও ৫ম দিনের টিকিটের টাকা ফেরত দেয়া হবে কি তাদের?

এমন প্রশ্নের যে জবাব এসেছে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল (সিএবি)- এর পক্ষ থেকে যা জানানো হলো তা আরও হতাশা বাড়িয়ে দিল সেসব ভুক্তোভোগী ক্রিকেটপ্রেমীদের।

টিকিটের টাকা ফেরত দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না জানিয়ে সিএবি'র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, টেস্ট তৃতীয় দিনে শেষ হয়ে যাওয়ায় তাদের কিছু করার নেই।

বিস্তারিত ব্যাখা দিয়ে সিএবির কোষাধ্যক্ষ দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায় আনন্দবাজারকে বলেন, বৃষ্টি বা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে খেলা বন্ধ হলে টিকিট ফেরতের প্রসঙ্গ আসতো। ইডেন টেস্টে এমন কিছু হয়নি। একদল খারাপ খেলেছে তাই তৃতীয় দিনের শুরুতেই খেলা সমাপ্তি হয়েছে। এজন্য টাকা ফেরতের প্রশ্ন ওঠে না।

তিনি বলেন, টেস্ট যদি প্রথম দিনেও শেষ হয়ে যেত, তা হলেও বাকি দিনগুলোর টিকিটের টাকা ফেরত দেয়া হত না।

ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের সাবেক সচিব বাবলু কোলে বলেন, বিষয়টি নিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের আক্ষেপ থাকতেই পারে। কারণ তারা টাকা দিয়েও খেলা দেখতে পারেননি। কিন্তু এখানে সিবিএ 'র কিছু করার নেই। কারণ নিয়ম তাই বলছে। ম্যাচে একটা বল গড়ানো মানেই টিকিটের দাম ফেরত অযোগ্য। গোলাপি বলের টেস্টে এক বল নয়, পুরো ম্যাচই হয়েছে। হোক তা পাঁচ দিনের বদলে তিন দিনে।

ইডেনে টিকিটের দাম ফেরত দেয়ার ইতিহাস রয়েছে এমন প্রশ্নে বাবলু কোলে বলেন, আমি যখন সচিব ছিলাম তখন ইডেনে প্রত্যেক ম্যাচের বিমা করা থাকত। তখন যদি কোনো ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যেত, টিকিটের দাম ফেরত দেয়া হতো। ইডেনের পিংক টেস্ট পুরোটাই হয়েছে। বৃষ্টির কারণে ম্যাচ বন্ধ হয়নি। খেলা নিজের গতিতে চলেই আড়াই দিনে টেস্ট পুরোটাই হয়েছে। ভারত জিতেছে, বাংলাদেশ হেরেছে। তাই ৪র্থ ও ৫ম দিনের টিকিটের দাম ফেরত দেয়া হবে না।

মন্তব্য