| প্রচ্ছদ

ইভটিজিং করায় কলেজছাত্রকে পেটাল তিন ছাত্রী

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১১৭ বার। প্রকাশ: ৩০ নভেম্বর ২০১৯ ।

বান্ধবীকে ইভটিজিং করার অভিযোগে এক ছাত্রকে মারধর করেছে তার সহপাঠী তিন ছাত্রী। বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরের দিকে রাজশাহী নিউ গভর্নমেন্ট ডিগ্রি কলেজের গেটের সামনে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে। তিন ছাত্রী মিলে ওই ছাত্রকে মারধর করার ২৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে- কলেজ ড্রেস পরা এক ছাত্রকে তিন ছাত্রী মিলে চড়-থাপ্পড় মারছে। ওই ভিডিওতে চারজন শিক্ষার্থীকে দেখা যায়।

জানা গেছে, তারা রাজশাহী নিউ গভর্নমেন্ট ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দ্বাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের টেস্ট পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর হল থেকে বের হয়ে মানবিক বিভাগের এক ছাত্র তার এক সহপাঠী ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। ওই ছাত্রী তার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন। তাই ক্ষোভে সে ওই ছাত্রীর গায়ে হাত দেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ভুক্তভোগী ছাত্রী সেখান থেকে সরে গিয়ে পাশে থাকা তার অন্য সহপাঠী ছাত্রীদের ঘটনাটি খুলে বলে। পরে তারা এসে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করে। এক পর্যায় গিয়ে তিনজন ছাত্রী মিলে উত্ত্যক্তকারী ওই ছাত্রকে প্রচণ্ড মারধর করে।

এ বিষয়ে রাজশাহী নিউ গভর্নমেন্ট ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ এসএম জার্জিস কাদের বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটি দেখার পর আমি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, ওই ছাত্র তার এক সহপাঠীকে উত্ত্যক্ত করেছে। এ ধরনের অপকর্মে জড়িত থাকলে আমরা অবশ্যই তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেব।

ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এভাবে ভিডিও দৃশ্য ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া মোটেই উচিত হয়নি। ভুক্তভোগীরা কলেজ প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দিলে আমরা অবশ্যই এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করতাম। আগামী রবিবার (১ ডিসেম্বর) আমি তাদের ডেকেছি। উভয়পক্ষের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য