| প্রচ্ছদ

পুলিশের গাড়ি দেখে নদীতে ঝাঁপ, খোঁজ মিলছে না জুয়াড়ির

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৯৪ বার। প্রকাশ: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯ ।

দিনাজপুরে জুয়া খেলার সময় পুলিশের গাড়ি দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে পালানোর চেষ্টাকারী এক যুবকের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছো না।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সদর উপজেলায় পূর্ণভবা নদীর রাজাপাড়া ঘাট নামক স্থানে এই ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ সিদ্দিকুর রহমান সদর উপজেলার গোবড়া পাড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন গাড়ি চালক।

স্থানীয়রা জানান, কয়েকজন মিলে রাজাপাড়া এলাকায় নদীর ধারে জুয়া (তাস) খেলছিলেন। এ সময় সেদিক দিয়ে পুলিশের একটি টহলগাড়ি যাওয়ার সময় ভয় পেয়ে তারা দৌড় দেন। এদের মধ্যে তিনজন পুলিশের হাতে ধরা পড়ার ভয়ে নদীতে ঝাঁপ দেন। পরে দুইজন সাঁতার দিয়ে অন্য তীরে উঠতে পারলেও সিদ্দিকুর রহমান নদী পার হতে পারেননি। পরে নদীতে তিনি নিখোঁজ হয়ে যান।

খবর পেয়ে দিনাজপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের দল নদীতে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সিদ্দিকুর রহমানের খোঁজ পাওয়া যায়নি।

ঘটনাস্থলে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরুজুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজন সরকার, কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেন উপস্থিত রয়েছেন।

ওসি বলেন, পুলিশ দেখে ভয়ে নদীতে নেমে সাঁতার দিয়ে অন্য পাড়ে ওঠার চেষ্টা করলেও সিদ্দিকুর উঠতে পারেনি। সে নদীতে নিখোঁজ রয়েছে।

পুলিশ জানায়, এরআগে প্রায় চার বছর আগে একই স্থানে জুয়া খেলার সময় পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে চারজন নিহত হয়েছিলেন।

মন্তব্য