| প্রচ্ছদ

আইপিএলে ১৩ বার নাম লিখিয়ে বিক্রি হননি মুশফিক

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬৩ বার। প্রকাশ: ২০ ডিসেম্বর ২০১৯ ।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ বা আইপিএলের ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের আসরের নিলামে বিক্রি হন নি বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটার। যেখানে বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম মোট ১৩ আসরেই নাম লিখিয়েছেন নিলামে, কিন্তু কোনোবারই ভারতের প্রিমিয়ার লিগের কোনো দল আগ্রহ দেখায়নি। খবর বিবিসি বাংলার।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে বাংলাদেশের নিয়মিত প্রতিনিধিত্ব করেছেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু চলতি বছরে ম্যাচ ফিক্সিং এর প্রস্তাব গোপন করার অভিযোগে সাকিব নিষিদ্ধ হওয়ার কারণে আইপিএলের নিলামে তার নাম ওঠেনি।

এর আগে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে বিভিন্ন সময়ে মোহাম্মদ আশরাফুল, আব্দুর রাজ্জাক, মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা, মুস্তাফিজুর রহমান ও তামিম ইকবাল বিক্রি হয়েছেন। যাদের মধ্যে তামিম ইকবাল ছাড়া সবাই ম্যাচ খেলেছেন।

চলতি বছরের নিলামে মূলত অলরাউন্ডারদের জয়জয়কার। অস্ট্রেলিয়ার নাথান কোল্টার নাইল বিক্রি হয়েছেন ৮ দশমিক ৫ কোটি রুপিতে, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলবেন তিনি। একই দামে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ওয়েস্ট ইন্ডিজের শেলডন কোটরেলকে নিয়েছে।

সাড়ে ১৫ কোটি রুপিতে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান পেস বোলার প্যাট কামিন্সকে। এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার ক্রিস মরিসকে দশ কোটি রুপিতে দলে নিয়েছে র‍য়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

বড় ক্রিকেটারদের মধ্যে ফর্মে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান শেই হোপ বিক্রি হননি, এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার ফাস্ট বোলার ডেল স্টেইনও বিক্রি হননি। শ্রীলঙ্কার কুশল পেরেরাও বিক্রি হননি।

অস্ট্রেলিয়ার উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ক্যারে দিল্লি কাপিটালসে প্রায় আড়াই কোটি রুপিতে যোগ দিয়েছেন। ইংল্যান্ডের অল রাউন্ডার স্যাম কারানকে দলে নিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস, যার ভিত্তি মূল্য ছিল ১ কোটি রুপি। নিলামে কারানের দাম উঠেছে সাড়ে পাঁচ কোটি রুপি।

ওদিকে আরেক অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ফিরছেন পাঞ্জাবে। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব তাকে দলে নিয়েছে ১০ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে। কলকাতা নাইট রাইডার্স নিয়ে ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের অধিনায়ক ইয়ন মরগানকে, যার মূল্য উঠেছে ৫ কোটি ২৫ লাখ রুপি।

২০১৯ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ যাচ্ছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুতে।

মন্তব্য