| প্রচ্ছদ

বয়সের ছাপ লুকাতে ভেষজ ফেসিয়াল মাস্ক

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৬ বার। প্রকাশ: ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ।

ত্বকে বা চেহারায় বয়সের ছাপ লুকিয়ে রাখতে অনেকেই পার্লারে গিয়ে রূপচর্চা করেন। এটি খরচ যেমন বেশি তেমনি অনেক সময়েরও প্রয়োজন।

বাড়িতেই অ্যান্টি এইজিং ভেষজ ফেসিয়াল মাস্ক তৈরি করে নিতে পারেন। আলাদা আলাদা ধরনের ত্বকের জন্য কয়েক রকমের অ্যান্টি এইজিং ভেষজ ফেসিয়াল মাস্ক।

অ্যাভোকোডা ও মধুর ফেসমাস্ক: ২ চামচ মধু, ২ চামচ অ্যাভোকোডা ও ১টি ডিমের কুসুম নিন।

সবকটি উপাদান একসঙ্গে নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন বা ভালো করে চটকে মেখে নিন। আপনার পরিষ্কার করে ধোয়া মুখের ত্বকে এই পেস্টটি মেখে অন্তত ২৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

এই ফেসিয়াল মাস্ক সাধারণ ত্বকে অ্যান্টি-এইজিং-এর কাজ করবে। একই সঙ্গে ত্বককে করবে উজ্জ্বল।

ডিম ও মধুর ফেসমাস্ক : ১টি ডিমের কুসুম, ১ চামচ দই, ১ চামচ মধু আর আধা চামচ আমন্ড অয়েল।

একটি বড় পাত্রে সবকটি উপাদান একসঙ্গে নিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন, যতক্ষণ না এটি গাঢ় আর আঠালো হচ্ছে। এবার এই মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে অন্তত ১০ মিনিট রেখে সাবান দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন।

মধু ত্বক স্নিগ্ধ করবে, আমন্ড আর ডিমের কুসুম ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করবে, দই ত্বককে পরিশোধিত আর সতেজ করবে।

মধু ও গাজরের ফেসমাস্ক: এই মাস্ক তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কার‌্যকরী। অর্ধেক গাজর আর আধা চামচ মধু নিন।

গাজর ভালো করে সেদ্ধ করে, চটকে পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে মিনিট দশেক ফ্রিজে রেখে দিন। এরপর মুখ ধুয়ে এই পেস্ট পরিষ্কার করা ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিয়ে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

গাজরে থাকা ভিটামিন এ, সি আর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। মধুর মধ্যে থাকা ভেষজ উপাদান, এনজাইম আর সুগার ত্বকের লাবণ্য বৃদ্ধিতে সহায়ক।

মধু ও কলার ফেসমাস্ক: এই ফেসমাস্ক তৈরিতে প্রয়োজন আধা চামচ মধু, ১টি পাকা কলা (চটকানো), দুধ দিয়ে সেদ্ধ করা ১ কাপ ওটমিল, ১টা ডিম।

সবকটি উপাদান একসঙ্গে নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে ত্বকে সমান অনুপাতে লাগান। ১০-১৫ মিনিট মাস্কটি রেখে উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

মধু ও ল্যাভেন্ডার ফেসমাস্ক: ১ চামচ মধু, ৩ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেন্সিয়াল অয়েল নিন।

উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিয়ে এই দুটি উপাদান ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে ত্বকের উপর মাস্কের মতো লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট রেখে আবার উষ্ণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। অ্যান্টি-এইজিং ফেসিয়াল মাস্ক হিসেবে সব ধরনের ত্বকেই উপকারী।

মন্তব্য