| প্রচ্ছদ

আত্রাইয়ের আহসানগঞ্জ ষ্টেশন কলোনীর পরিত্যক্ত বাসাগুলো এখন মাদকের আখড়া

নওগাঁ প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৩৬ বার। প্রকাশ: ২১ জানুয়ারী ২০২০ ।

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ রেলওয়ে ষ্টেশন সংলগ্ন রেল কলোনীর পরিত্যাক্ত বাসাগুলো এখন মাদকের নিরাপদ আখড়ায় পরিনত হয়েছে। ব্রিটিশ আমলে তৈরী এসব বাসা গুলো সংশ্লিষ্ট দপ্তরের যথাযথ নজরদারি না থাকায় মাদক সেবনের নিরাপদ স্থান হিসেবে বেছে নিয়েছে মাদকসেবীরা। এখানে দিনে রাতে জমে ওঠে মাদক সেবন ও বিক্রয়ের আড্ডাখানা । নিরাপদ নিরিবিলি হওয়ায় স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী ও ভ্রাম্যমান পতিতারা স্থান টি বেছে নিয়ে অবাধে চালায় তাদের কর্মকান্ড। দীর্ঘদিন পরিত্যক্ত থাকায় এই ভবনগুলোতে চলছে নানা অপকর্ম।


খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আহসানগঞ্জ স্টেশন হতে প্রায় ১কিলোমিটার অদুরে মাঠ সংলগ্ন আত্রাই স্টেশন অবস্থিত  যা পুরাতন রেল স্টেশন নামে পরিচিত। সেখানে রেলওয়ে স্টাফদের বসবাসের জন্য ব্রিটিশ আমলে ১৪টি ভবন তৈরী করে তৎকালীন রেল কর্তৃপক্ষ। যোগাযোগ, বিদ্যুৎ ব্যবস্থা, দীর্ঘদিন মেরামত সংস্কার না করার কারণে বসবাসের অনুপযোগি হয়ে বাসাগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় পরে রয়েছে। এই সুযোগে মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীরা কেনাবেচা চালায় প্রকাশ্যে । 
স্থানীয়দের অভিযোগ, নির্জন এলাকা হওয়ায় দিনের বেলায় কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা এখানে এসে আড্ডা দেয়। আর রাতের বেলায় ভ্রাম্যমান পতিতাদের অবাদ চলাফেরা। ভবনগুলো দ্রুত সংস্কার করে অপরাধ কর্মকান্ড ভয়ংকর রুপ নেওয়ার হাত থেকে রক্ষার দাবি জানান তারা।


ভরতেতুলিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক ও কলেজ পাড়ার উত্তম সাহা বলেন, মাদকের কারনে যুব সমাজ আজ ধ্বংসের পথে। এখুনি স্টেশন মাস্টারের ঘরসহ পরিত্যক্ত ভবন গুলোর সংস্কার করে চলমান সমস্যার সমাধান করা প্রয়োজন।


স্টেশন মাষ্টার আরিফুল ইসলাম জানান, পরিত্যক্ত স্টাফ কলোনির পাশাপাশি এলাকায় গড়ে উঠেছে  বেশ কয়েকটি বস্তি। এখানে অবাদে মাদক ব্যবসা ও অসামাজিক কার্যকলাপ চলে। মাদক ব্যবসায়ী ও স্থানীয় প্রভাবশালীদের কারনে নিরাপত্তার কথা ভেবে কোন পদক্ষেপ নিতে পারি না। 
আত্রাই থানা ওসি মোসলেম উদ্দিন বলেন , আমি কয়েক মাস হলো এখানে এসেছি। সকল জায়গা সম্পর্কে অবগত হতে পারিনি। বিষয়টি আমার জানা ছিলো না। আমরা তৎপর আছি স্টেশন এলাকায় পরিত্যক্ত কলোনীতে এবং বস্তিতে যাতে কোন অপরাদ সংগঠিত না হয় সে বিষয়ে খেয়াল রেখে অভিযান পরিচালনা করবো।

 

মন্তব্য