| প্রচ্ছদ

মেসির সতীর্থ বাংলাদেশে পাবেন মাসে ১৭ লাখ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৮ বার। প্রকাশ: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক স্ট্রাইকার হার্নান বার্কোস এ মৌসুমে খেলবেন বসুন্ধরা কিংসে। এটা পুরোনো খবর। কিন্তু বাংলাদেশে তিনি কত টাকা পাবেন—এটা নিয়ে একটা আগ্রহ আছেই। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশে বার্কোস প্রতি মাসে পাবেন প্রায় ১৭ লাখ টাকা।

বাংলাদেশের ফুটবলে আর কিছু না থাক, টাকার অন্তত অভাব নেই। দেশের ফুটবলে মানের দৈন্য অবস্থার মধ্যেও টাকা যেন ফুটবলারদের পেছনেই ছোটে। গত মৌসুমের মতো এবারও বাংলাদেশের ফুটবলারদের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক বছরে ৬৫ লাখ টাকা। বিদেশিদের মধ্যে এত দিন সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পেতেন বসুন্ধরারই কোস্টারিকার ফুটবলার দানিয়েল কলিন্দ্রেস—মাসে ১৭ হাজার ডলার। এবার কলিন্দ্রেসকে ছাপিয়ে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত বিদেশি হতে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার বার্কোস।

বুধবারই ঢাকায় আসতে যাচ্ছেন ৩৫ বছর বয়সী বার্কোস। ২০১২ সালে ব্রাজিলের বিপক্ষে সুপার ক্লাসিকোয় আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে অভিষিক্ত হয়েছিলেন বার্কোস। কোচ আলেসান্দ্রো সাবেলার অধীনে সে ম্যাচে অবশ্য লিওনেল মেসি খেলেননি। তবে সে বছরই বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বার্কোস উরুগুয়ে ও চিলির বিপক্ষে দুটি ম্যাচে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন। সে ম্যাচে মেসি-হিগুয়েইন-আগুয়েরোরা খেলেছিলেন। একটি ম্যাচে তিনি বদলি ছিলেন হিগুয়েইনের, অন্যটিতে আগুয়েরোর। জাতীয় দলের হয়ে অবশ্য তাঁর কোনো গোল নেই।

ক্লাব-ক্যারিয়ারটা বার্কোসের গর্ব করার মতোই। খেলেছেন ব্রাজিলের বিখ্যাত ক্লাব পালমেইরাস, গ্রেমিও ও ক্রুজেইরোতে। ২০১২-১৩ মৌসুমে পালমেইরাসের হয়ে ২৯ ম্যাচে করেছিলেন ১৪ গোল। পরের দুই মৌসুমে গ্রেমিওর জার্সিতে ৬৯ ম্যাচে ২৩ গোল। ২০১৭ মৌসুমে ইকুয়েডর প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব এলডিইউ কুইটোর হয়ে ২১ গোল করতে খেলেছেন ২৬ ম্যাচ। সর্বশেষ কলম্বিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব অ্যাটলেটিকো ন্যাসিওনালের হয়ে ১৪ ম্যাচে ৬ গোল।

এএফসি কাপে এবার খেলবে বসুন্ধরা। আন্তর্জাতিক এ ক্লাব প্রতিযোগিতাকে সামনে রেখে বেশ আটঘাট বেঁধেই নামছে বসুন্ধরা। বার্কোসকে আনা হচ্ছে সেই উদ্দেশ্যেই। নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাওয়ায় প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্বে মাঠে নামতে পারবেন না আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। তবে খেলবেন দ্বিতীয় পর্বে। এএফসি কাপ দিয়ে মার্চেই তাঁর বসুন্ধরার জার্সিতে অভিষিক্ত হওয়ার কথা।

মন্তব্য