| প্রচ্ছদ

শান্তর ব্যাটে ভরসা খুঁজছে বাংলাদেশ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৫ বার। প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের। তামিমের সঙ্গে অভিষেক ম্যাচে ওপেন করতে নামা সাইফ হাসান ডাক মেরে ফেরেন সাজঘরে। এরপর ফিরে যান বিরতির পরে টেস্টে ফেরা তামিমও। দলকে ভরসা দিচ্ছিলেন নাজমুল শান্ত ও মুমিনুল হক। কিন্তু অধিনায়ক সেট হয়ে ফিরে গেছেন। বাংলাদেশ মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত ৩৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ৯৫ রানে ব্যাট করছে। 

ক্যারিয়ারের তৃতীয় টেস্ট খেলতে নামা নাজমুল শান্ত ৪৪ রানে ক্রিজে আছেন। মাহমুদুল্লাহ ১৭ রানে ব্যাট করছেন। নাজমুলকে সঙ্গ দিয়ে খেলছিলেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। কিন্তু তিনি ৩০ রান করে শাহিন আফ্রিদের বাইরের বলে শট খেলতে গিয়ে ফিরেছেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে ট্রিপল সেঞ্চুরি করার আত্মবিশ্বাস নিয়ে পাকিস্তানে যাওয়া তামিম ৩ রান করে আউট হয়েছেন।

দীর্ঘ ১৬ বছর পরে রাওয়ালপিন্ডিতে ফিরেছে টেস্ট। বাংলাদেশও প্রায় ১৬ বছরের বেশি সময় পরে টেস্ট খেলতে গেছে পাকিস্তানে। বছরের প্রথম টেস্টে টস হেরে ব্যাটিং পায় বাংলাদেশ। গত বছর টেস্টে কোন জয় না পাওয়া বাংলাদেশ পিন্ডি টেস্ট দিয়ে ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙার কথা জানায়। কিন্তু সে আশায় শুরুতেই গুড়েবালি।

বাংলাদেশ এ ম্যাচে তিন পেসার নিয়ে নেমেছে। রুবেল হোসেন ২০১৮ সালের জুনের পরে আবার টেস্ট দলে ফিরেছেন। পাকিস্তান দলেও পেসার তিনজন। এছাড়া দুই দলই একজন করে নিয়মিত স্পিনার নিয়ে খেলছে। বাংলাদেশ দলে আছেন তাইজুল ইসলাম। পাকিস্তান খেলছে লেগ স্পিনার ইয়াসির আলীকে নিয়ে।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসাইন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, আবু জায়েদ, এবাদত হোসেন।

পাকিস্তান একাদশ: শান মাহমুদ, আবিদ আলী, আজহার আলী (অধিনায়ক), বাবর আযম, হারিস সোহেল, আসাদ শফিক, মোহাম্মদ রিজওয়ান(উইকেটরক্ষক), ইয়াসির শাহ, মোহাম্মদ আব্বাস, নাসিম শাহ, শাহিন আফ্রিদি

মন্তব্য