| প্রচ্ছদ

খালেদা জিয়া মুক্ত থাকলে বাংলাদেশ এত নতজানু হত না- এমপি সিরাজ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
পঠিত হয়েছে ৬২ বার। প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক ও বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার যদি মুক্ত থাকতেন বাংলাদেশ বন্দি থাকত না, থাকত না এতটা দুর্বল আর নতজানু হয়ে। যে কোনো সময় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার ভূতলে শায়িত হবে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার একটাই অপরাধ তিনি জনপ্রিয়। তাই সরকার তাকে ভয় পায়। খালেদা জিয়ার মিথ্যা মেডিকেল রিপোর্ট দেন। চিকিৎসা করাচ্ছেন না। ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছেন।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার বন্দিত্বের দু’বছর পূরণ হলো। এক অর্থে বাংলাদেশও বন্দি আজ বহু বছর ধরে। এই মহীয়সী নারী বিনা অপরাধে মিথ্যা মামলায় শেখ হাসিনার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়ে কারাজীবন অতিবাহিত করছেন। বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কারাবাসের দুই বছর পূর্তি ও কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে বগুড়া জেলা বিএনপির আয়োজিত  শনিবার সকালে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বগুড়া জেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য কেএম খায়রুল বাশারের পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন, বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক, সাইফুল ইসলাম, ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা, জয়নাল আবেদিন চাঁন, লাভলী রহমান, জেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান বকুল, আহসানুল হক তৈয়ব জাকির, এম আর ইসলাম স্বাধীন, হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, সহিদ উন নবী সালাম, শেখ তাহা উদ্দিন নাইন, বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেল, বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এ্যাড.সোলায়মান আলী, কাহালু উপজেলা বিএনপির আহবায়ক সেলিম উদ্দিন, শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আব্দুর রাজ্জাক মাষ্টার, শাজাহানপুর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আব্দুল হাকিম, শহর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মশিউর রহমান শামিম, গাবতলী উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আসরাফ আলী, বগুড়া জেলা যুবদলের আহবায়ক খাদেমুল ইসলাম খাদেম, যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক এ বি এম মাজেদুর রহমান জুয়েল, যুগ্ম আহবায়ক সরকার মকুল, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসান  ও সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যান । 

বিক্ষোভ সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন জিয়া শিশু কিশোর সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন চৌধুরী, ওমর ফারুক খান, মনিরুজ্জামান মনির, ভিপি পলিন, শাকিলুজ্জামান শাকিল, জেলা কৃষক দলের আহবায়ক আকরাম হোসেন, শ্রমিকদলের সাইদুর কবির, মতিয়ার রহমান মতি, লিটন শেখ বাঘা, শহর ছাত্রদলের সভাপতি সৌরভ হাসান সিপলু, সিপাত সরকার প্রমুখ।
 

মন্তব্য