| প্রচ্ছদ

লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ইনিংস ব্যবধানে হার

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৯ বার। প্রকাশ: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

পাকিস্তানের বিপক্ষে লড়াইটাও করতে পারল না বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে চারদিনের ভেতর ইনিংস ও ৪৪ রানে হেরে গেছে মুমিনুল হকের দল। অথচ দেশ ছাড়ার আগে তারা ‘ভালো ক্রিকেট’ আর ‘লড়াইয়ের’ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

১৬ বছরের নাসিম শাহর হ্যাটট্রিক আগের দিন বাংলাদেশকে রীতিমতো ধসিয়ে দেয়। টেস্টের সর্বকনিষ্ঠ এই হ্যাট্রটিকম্যানের কারণে মুহূর্তে ৫ উইকেটে ১২৪ হয়ে যায় বাংলাদেশ। দিনের শেষ ওভারে মোহাম্মদ মিঠুন বিদায় নিলে রবিবার ৬ উইকেটে ১২৬ রানে থামে বাংলাদেশ। এদিন বাকি ব্যাটসম্যানরা অনুমিতভাবেই এসেছেন আর গেছেন। শেষ ৮ উইকেট পড়েছে ৪৪ রানে।

শাহিন আফ্রিদি প্রথম ইনিংসে চার উইকেট নেওয়ার পর বাবর আজম চার নম্বরে ১৯৩ বলে ১৪৩ রানের ইনিংস খেলেন। ওপেনার শান মাসুদ ১৬০ বলে ঠিক ১০০ রানে সাজঘরে ফেরেন।

নাসিম শাহ প্রথম ইনিংসে এক উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে নেন ৪ উইকেট। নজরকাড়া এই বোলিংয়ে তিনি ম্যাচসেরা হয়েছেন।

শেষ ছয় টেস্টে এটি বাংলাদেশের পঞ্চম ইনিংস পরাজয়। আর দেশের বাইরে আট টেস্টে সপ্তম! সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট হবে এপ্রিলে।

দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের বলার মতো কোনো পারফরম্যান্স নেই। ‘সর্বোচ্চ’ স্কোরার মুমিনুল হক, ৪১। প্রথম ইনিংসে মোহাম্মদ মিঠুন ছাড়া কারো অর্ধশতক ছিল না। ১৪০ বলে সাত চার, এক ছয়ে ৬৩ করেন তিনি। ওই ইনিংসে তিন নম্বরে নেমে শান্ত খেলেন ৪৪ রানের ইনিংস।

বোলারদের মধ্যে রুবেল হোসেন আর আবু জায়েদ যা লড়েছেন। দুজনেই তিনটি করে উইকেট নেন। তাইজুল ইসলামের শিকার দুটি।

মন্তব্য