| প্রচ্ছদ

প্রধানমন্ত্রী একটা বিশ্বকাপ চেয়েছিলেন: পাপন

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭৩ বার। প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

লাল গালিচা পেতে বিশ্বকাপ জয়ী অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে বরণ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে তাদের দেওয়া হয়েছে সংবর্ধনা। চ্যাম্পিয়ন লেখা কেট কাটা হয়েছে। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিশ্বজয় স্মরণে ফুটানো হয়েছে ১৯টি আতশবাজি। এরপর সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে এসে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটারদের আগামী সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী সংবর্ধনা দেবেন। খবর সমকাল অনলাইন 

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘অনূর্ধ্ব-১৯ দলের এই ক্রিকেটারদের নিয়ে দুই বছর আলাদা করে পরিকল্পনা করা হয়েছিল। তাদের উন্নতির জন্য আলাদা করে খালেদ মাহমুদ সুজনকে দায়িত্ব দিয়েছিলাম। ক্রিকেটাররা বিদেশি সফরে ভালো ক্রিকেট খেলেছে। এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের কাছে হেরেছে। আবার ভারতের বিপক্ষে ইংল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ফাইনাল খেলেছে। তখনই আমাদের মনে হয়েছিল, এই দল বিশ্বকাপ জিততে পারে।’

বাংলাদেশ জাতীয় দল এশিয়া কাপের ফাইনালে হেরেছে তিন বার। নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে হেরেছে। তবে বাংলাদেশ নারী দল এশিয়া কাপ জিতে দেশকে প্রথম শিরোপা এনে দেন। এরপর মাশরাফিরা ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ জিতে শিরোপা খরা ঘুচান। বোর্ডের তাই একটা বড় শিরোপার স্বপ্ন দেখে উল্লেখ করে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছিলেন, পাপন এবার একটা বিশ্বকাপ দেখতে চাই।’ ক্রিকেটারদের একসঙ্গে রেখে তাদের সুযোগ-সুবিধা বাড়িয়ে তাই যুবা বিশ্বকাপে জয়ের জন্য প্রস্তুত করার কথা জানান তিনি।

এখন ক্রিকেট বোর্ডের দায়িত্ব বিশ্বকাপ জয়ী এই ক্রিকেটাররা যাতে ঝরে না পড়ে সেদিকে মনোযোগ দেওয়া। তারা যেন ঠিকঠাক গড়ে উঠতে পারে সেই পথ তৈরি করে দেওয়া। এ নিয়ে নাজমুল হাসান পাপন জানান, তাদের জন্য একটা অনূর্ধ্ব-২১ পর্যায়ের দল গঠনের পরিকল্পনা নিয়েছে বিসিবি। যাতে তারা ঠিক মতো অনুশীলনের সুযোগ পায়। নিজেদের খেলায় আরও উন্নতি আনতে পারে।

মন্তব্য