| প্রচ্ছদ

বগুড়া আ: হক কলেজে অমর একুশে বইমেলা শুরু

অরুপ রতন শীল
পঠিত হয়েছে বার। প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:০৫:২৯ ।

দুই বছর বন্ধ থাকা বগুড়া  সরকারি আজিজুল হক কলেজে আবারও শুরু হলো 'অমর একুশে বইমেলা'। কলেজ চত্বরে ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ বই মেলা চলবে ২১শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। 
বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় মুজিববর্ষ এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ৯দিন ব্যাপী এই বইমেলার উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু।  উদ্বোধন শেষে কলেজের মুক্তমঞ্চে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠান প্রধান প্রফেসর মোঃ শাহজাহান আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- বইমেলা বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক  উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ ফজলুল হক, জেলা আওয়ামীলীগের যথাক্রমে সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু,  সহ সভাপতি টি জামান নিকেতা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহনের পত্নী কোহিনুর মোহন, এ কে এম আছাদুর রহমান দুলু, কোষাধ্যক্ষ মাসুদুর রহমান মিলন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, সাধারণ সম্পাদক অসীম কুমার রায়, কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি কে এম মোজাম্মেল হোসাইন বুলবুল। পুরো আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফ।

বিকেল ৩টা থেকে বইমেলা শুরু হলেও সকালে  উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থেকেই  ছিল শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভীড়। বই মেলার ২৮টি স্টলে ছোটদের নানা রকম গল্প ও কবিতার বই এবং বিখ্যাত লেখকদের নতুন প্রকাশনার বই পাওয়া যাচ্ছে। 

এদিকে বইমেলার পাশে শিশুদের বিনোদনের জন্য নাগর দোলার ব্যবস্থা রয়েছে। 


আবার বইমেলা শুরু হওয়ায় সব শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছিল ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা।
রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নিলুফা জানান, এই বইমেলার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলাম।মনে হচ্ছে ক্যাম্পাসে প্রাণ ফিরে পেয়েছে।


ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী আতিকুর রহমান জানান, এই মেলার মাধ্যমেই ছাত্র- শিক্ষক সম্পর্ক আরও কাছের হয়। নতুন করে অনেক কিছু শিখতে পারি।।তাই বইমেলা আবার শুরু হওয়ায় অধ্যক্ষ স্যারকে ধন্যবাদ।


বইমেলা বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক উপাধ্যক্ষ ফজলুল হক জানান, প্রতিদিন বিকাল ৩ টা থেকে বিভিন্ন বিভাগের নির্ধারিত বিষয়ের উপর চলবে আলোচনা সভা।।সেই সাথে আলোচনা সভা শেষে অনুষ্ঠিত হবে জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।


বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, পুরো বইমেলা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে রাখা হয়েছে। এজন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মন্তব্য