| প্রচ্ছদ

এক সপ্তাহে ব্রিটিশ রাজপরিবারে ফের বিয়ে বিচ্ছেদ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭৮ বার। প্রকাশ: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

সপ্তাহ যেতে না যেতেই ব্রিটিশ রাজপরিবারে দ্বিতীয় বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটল। বিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের বোনের ছেলে ডেভিড আর্মস্ট্রং-জোন্স এবং তার স্ত্রী সেরেনা।

ডেভিডের রাজকীয় উপাধি দ্বিতীয় দ্য আর্ল অব স্নোডন এবং তার স্ত্রী সেরেনার কাউন্টেস অব স্নোডন। রাজপরিবারের ২১তম উত্তরাধিকারী ডেভিড।

রানির একমাত্র বোন প্রিন্সেস মার্গারেটের ছেলে ৫৮ বছর বয়সী ডেভিড। তার বাবা প্রথম দ্য আর্ল অব স্নোডন অ্যান্থনি  আর্মস্ট্রং-জোন্স ছিলেন একজন ফটোগ্রাফার।

ডেভিড-সেরেনার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, দ্য আর্ল এবং কাউন্টেস অব স্নোডেন তাদের ২৬ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি ঘোষণা করছেন এবং তারা বিচ্ছেদের বিষয়ে একমত হয়েছেন। 

বেশ কয়েক মাস আগেই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন নিয়েছিলেন তারা। তবে ঘোষণা দিতে রানির সম্মতির জন্য অপেক্ষা করছিলেন তারা।

গত সপ্তাহে বিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের নাতি পিটার ফিলিপস ও তার স্ত্রী অটাম।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ-প্রিন্স ফিলিপ দম্পতির সবচেয়ে বড় নাতি পিটার ফিলিপস। প্রিন্সেস রয়্যাল অ্যানি এবং তার প্রথম স্বামী ক্যাপ্টেন মার্ক ফিলিপসের একমাত্র পুত্রসন্তান তিনি।

গত মাসে প্রিন্স হ্যারি-ম্যাগানের রাজপরিবার ছাড়ার সিদ্ধান্তে মর্মাহত ব্রিটিশ রাজপরিবার। এর মধ্যে দুই বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটল।

এর আগে ব্রিটিশ রাজপরিবারে সবচেয়ে আলোচিত বিয়ে বিচ্ছেদ ছিল প্রিন্স চার্লস এবং প্রিন্সেস ডায়ানার মধ্যকার। ১৯৯৬ সালে তাদের পনেরো বছরের দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনের অবসান ঘটে। পরের বছরেই এক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রেমিক দোদি আল ফায়েদসহ নিহত হন ডায়ানা।  

মন্তব্য