| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় সরকারি অফিস ও জুয়েলার্সে দুর্ধর্ষ চুরি

নন্দীগ্রাম(বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১৫৫ বার। প্রকাশ: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

বগুড়ার নন্দীগ্রামে চারটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও একটি সরকারি আফিসে মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে পৌর শহরের শহীদ আকরাম সড়কে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এতে দুর্বৃত্তরা প্রায় ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করেছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুর্বৃত্তদের একজনকে একটি পিকআপসহ আটক করে। 

জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে নন্দীগ্রাম পৌর শহরের শহীদ আকরাম সড়কে প্রাণি সম্পদ অফিসের পিছনের জানালা কেটে দুর্বৃত্তরা ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর আলমারীর তালা ভেঙ্গে ফাইলপত্র তছনছ করে। উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিসার ডা. অরুনাংশু মন্ডল বলেন, দুর্বৃত্তরা অফিস থেকে ২টি মনিটর, ১টি স্ক্যানার ও প্রজেক্টর নিয়ে গেছে। 

প্রাণি সম্পদ অফিস সংলগ্ন কামাল সুপার মার্কেটে অবস্থিত সৌদি জুয়েলার্সের মালিক আবুল কালাম আজাদ বলেন, দুর্বৃত্তরা তার দোকানের তালা কেটে ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর প্রায় ১৫ লাখ টাকা মুল্যের সোনার গহনা লুট করে। 

এছাড়াও একই সময়ে ওই মার্কেট সংলগ্ন পার্থিব প্রাঙ্গনে আপন জুয়েলার্স, সাবিত্রী জুয়েলার্স ও বিসমিল্লাহ টাইলস ঘরের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে দুর্বৃত্তরা। এসব জুয়েলার্স থেকে রুপা ও চাদনীর কিছু মুল্যবান গহনা নিয়ে গেছে। তবে বিসমিল্লাহ টাইলসে মালামাল তছনছ করলেও কিছু নিতে পারেনি। 

এদিকে রাত তিনটার দিকে দোকানের সিন্দুক ভাঙ্গার শব্দ পেয়ে মার্কেট সংলগ্ন বাসা থেকে এক ব্যক্তি থানা পুলিশকে বিষয়টি জানায়। এরপরই পুলিশ সেখানে পৌছিলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ বিভিন্নস্থানে অভিযান শুরু করে। ভোর রাতের দিকে বেড়াগাড়ি এলাকা থেকে একটি পিক আপসহ (বগুড়া ন-১১-০২৬৭) একজনকে আটক করে। পরে ওই পিকআপ থেকে প্রাণি সম্পদ অফিসের দুইটি মনিটর ও স্ক্যানার উদ্ধার করা হয়।

নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শওকত কবির বলেন, আটক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জড়িতদের সনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। চুরিকৃত কিছু মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্তব্য