| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় ব্যবহারিক পরীক্ষার ফি দাবি: প্রতিবাদে প্রধান শিক্ষকের কক্ষে তালা

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ২১৭ বার। প্রকাশ: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

ব্যবহারিক পরীক্ষায় নম্বর দেয়ার কথা বলে পরীক্ষার্থী প্রতি ২শ’ টাকা করে দাবি করার প্রতিবাদে বগুড়ার শাজাহানপুরে মানিকদিপা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককের কক্ষসহ কয়েকটি শ্রেণি কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে এসএসসি পরিক্ষার্থীরা। পরে বিদ্যালয়ের অন্যান্য শ্রেণির শিক্ষার্থীরাও তাদের সাথে যোগ দেয়। শনিবার সকালে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শকালে প্রধান শিক্ষকের অপসারণসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানায় শিক্ষার্থীরা। 


অপরদিকে তালা ঝুলানোর সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ দুুপুরে ওই বিদ্যালয়ে গিয়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে এবং তাদের দাবির বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা তালা খুলে দেয়। এর আগে গত বৃহস্পতিবারও বিদ্যালয় চত্বরে বিক্ষোভ করেছে পরীক্ষার্থীরা। বিক্ষুব্ধ এসএসসি পরিক্ষার্থীরা জানায়, মানিকদিপা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬২ জন শিক্ষার্থী এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। ব্যবহারিক পরীক্ষায় নম্বর দেয়ার কথা বলে প্রতি পরীক্ষার্থীর নিকট থেকে ২শ’ টাকা করে দাবি করেন প্রধান শিক্ষক। পরীক্ষার্থীরা টাকা দিতে অস্বীকার করায় প্রধান শিক্ষক তাদেরকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন। 


এসএসসি পরীক্ষার্থী আল আমিন, মোজাহিদ, আরিফুল, ওহাব, মেহেদী, তানিয়া, সাদিয়া, মমতাজসহ অন্যান্যরা জানায়, ফরম পূরণের সময়ও জোর করে জনপ্রতি ৪ হাজার ৫শ’ টাকা করে নিয়েছে। প্রতিবাদ করলে ক্ষতি হতে পারে এমন  আশংকায় সে সময় তারা কিছু বলেনি। দুর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষক আব্দুল আজিজকে অপসারণ না করা পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলে জানায়। শহিদুল ইসলাম, ইউসুব আলী, তোতা মিয়াসহ কয়েক জন অভিভাবক জানান, প্রধান শিক্ষক আব্দুল আজিজ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বিভিন্ন সময় নানা কায়দায় টাকা দাবি করেন। এতে ছেলে-মেয়েদের শিক্ষাজীবন ধ্বংশ হতে বসেছে। পরীক্ষার ফলাফল খারাপ হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। অপরদিকে সবগুলো অভিযোগ অস্বীকার করে প্রধান শিক্ষক আব্দুল আজিজ জানিয়েছেন, বিদ্যালয়কে ঘিরে স্থানীয় কিছু সমস্যা রয়েছে। স্বার্থ সিদ্ধির জন্য কতিপয় ব্যক্তি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

মন্তব্য