| প্রচ্ছদ

বৃষ্টি মাথায় নিয়েও বগুড়া বইমেলা জমজমাট

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ১৭৪ বার। প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

সোমবার ৫ম দিন দুপুরের পর থেকে বগুড়া বইমেলার বই বিক্রেতারা হাসতে থাকে। রোদের তেজ যতটা বেড়েছে ঠিক ততটায় যেন বেড়েছে বইমেলায় ভিড়। আর সকালের বৃষ্টিতে কিছুটা ঝিমিয়ে পড়েছিল। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানকে ঘিরে বইমেলা জমজমাট। 
বগুড়া বইমেলায় আসা পাঠকরা বলছেন, অতিরিক্ত খরচ করে আর ঢাকায় যেতে হচ্ছে না। ঢাকার সব বই এখন বগুড়া বইমেলাতে পাওয়া যাচ্ছে। যে কারণে পাঠকদের মাঝে আরো বেশ গুঞ্জন পড়েছে। নতুন বইয়ের তালিকা যেমন হোক। এবার তরুণরা বেশি কিনছে বিজ্ঞান ও বিজ্ঞানের কল্পকথা ভিত্তিক বিভন্ন প্রকাশনা। 


অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উপলক্ষ্যে বগুড়া সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ১০ দিনের বইমেলার বয়স বড়েছে। বইমেলার মধ্যবয়ে এসে দাঁড়িয়েছে। চার দিন পর ২৯ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হচ্ছে বগুড়া বইমেলা। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট থেকে এবার আগামী শুক্রবার ২৮ ফেব্রুয়ারি বগুড়া বইমেলা শিশুদের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে। সেদিন ছুটির দিনে শিশুরা যেন নিজেদের পছন্দ মতে কেনাকাটা করতে পারে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এদিন শিশুদের জন্য বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা করার জন্য বই বিক্রেতাদের বলা হয়েছে। এদিকে বগুড়া বইমেলর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানকে ঘিরে সাধারণ শ্রতা, দর্শকে ঘিরে থাকছে বইমেলা প্রাঙ্গণ। 


সোমবার নির্ধারিত আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন দৈনিক করতোয়া বার্তা সম্পাদক প্রদীপ ভট্টাচার্য্য শংকর, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জেএম রউফ। আলোচক গণ ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস থেকে শুরু করে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলা ভাষার সম্মান আরো বৃদ্ধি করা, বাংলা ভাষাকে চির জাগ্রত করে রাখতে সাহিত্য বিষয়ক বই প্রকাশ করা। তরুণ বা শিশুদের পাঠ্যপুস্তুকের পাশাপাশি গল্প, মুক্তিযুদ্ধ, কবিতা বা সহপাঠের ব্যবস্থা করা। যেন তরুণরা প্রগতিশীল হয়ে মানব সমাজের জন্য কাজ করে যেতে পারে। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সহ সভাপতি মতিয়ার রহমান। জোটের দপ্তর সম্পাদক এইচ আলিম এর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন গৌতম কুমার দাস, আসাদ হোসেন,  সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সিদ্দিকী, সহ সাধারণ সম্পাদক এসএম বেলাল হোসেন, আলমগীর কবির, অর্থ সম্পাদক রবিউল আলম অশ্রু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলে রাব্বী, দপ্তর সম্পাদক এইচ আলিম, প্রচার সম্পাদক লুবনা জাহান, নির্বাহী সদস্য আসাদুর রহমান খোকন, আব্দুল আউয়াল, জোটের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবিএম জিয়াউল হক বাবলা, নান্দনিক নাট্যদলের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান চৌধুরী, বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হান্নান, টিপু সুলতান, লিপি প্রধান, সাজ্জাদ আলী, সৈয়দ আশিক ফারুক, মেহেদি হাসান, শরীফ মজুমদার, রাকিব জুয়েল, অলক পাল, তাপস কুমার নিয়োগী, গোলাম কুদ্দুস লাল প্রমুখ। 
এদিনে ফরমান আলী বাবুর ভৌগলিক কবিতাগুচ্ছ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে সাংস্কৃতিক অনুশীলন ৯৫ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠি, নান্দনিক নাট্যদল, কণ্ঠসাধন আবৃত্তি পরিষদ এবং নৃত্যছন্দম আর্টস একাডেমী। নান্দনিক নাট্য দল চিত্তে আমার বঙ্গবন্ধু নাটক মঞ্চায়ন করে। নিদের্শনা ও রচনা করে খলিলুর রহমান চৌধুরী। আজ ২৫ ফেব্রুয়ারি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবে স্বপ্নচুড়া শিল্পী গোষ্ঠি, সুরের ছোঁয়া সঙ্গীত নিকেতেন, করতোয়া নাট্য গোষ্ঠি। আলোচক হিসেবে থাকবেন দৈনিক চাঁদনী বাজারের সম্পাদক সুমনা রায়, বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হান্নান, নান্দনিক নাট্য দলের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান চৌধুরী। 
 

মন্তব্য