| প্রচ্ছদ

বগুড়া বইমেলা শেষ হচ্ছে শনিবার

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ১৫৭ বার। প্রকাশ: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ।

বগুড়া বইমেলার সময় আর বাড়ছে না। নিয়ম মেনে শনিবার শেষ হচ্ছে বইমেলা। শেষ দিনে বইমেলায় পুন্ড্র সম্মাননা পদক প্রদান করা হচ্ছে একুশে পদক ও স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ড. এনামুল হককে। এছাড়া সাবেক এমপি আব্দুল মান্নান এর নামে একটি পদকের নামকরণ করা হয়েছে। সমাজসেবা ও রাজনীতিতে বিশেষ অবদান রাখায় এই পদক প্রদান করা হবে জেলা পরিষদের চেয়াম্যান ডাঃ মকবুল হোসেনকে। আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি সমাপনী অনুষ্ঠানে এই পদক ও সম্মাননা প্রদান করা হবে। এই ছাড়াও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারি প্রতিটি সংগঠনকে প্রদান করা হবে সনদ পত্র। 
অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উপলক্ষ্যে বগুড়া সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ১০ দিনের বইমেলার ৮ম দিনে বৃহস্পতিবার নতুন বেশ কিছু বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কবি সিকতা কাজলের কাব্যগ্রন্থ ‘সাতমথা সিরিজ’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন শিক্ষাবিদ সামস উল আলম। রনি বর্মন সম্পাদিত বামিহাল সাহিত্যের ছোট কাগজের মোড়ক উন্মোচন করেন কবি শিবলী মোকতাদির। কবি সারমিন সীমার কাব্যগ্রন্থ আয়নার ছায়া’র মোড়ক উন্মোচন করেন কবি খৈয়াম কাদের। মল্লিকা প্রকাশ থেকে প্রকাশ পাওয়া ও আজিজার রহমান তাজ সম্পাদিত ১৪ কবির কবিতা নিয়ে প্রকাশিত মনের ফুল কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন জোটের সভাপতি তৌফিক হাসান ময়না। কবি ফাতেমা ইয়াসমিন এর প্রথম কাব্যগ্রন্থ তুমি আসবে বলে এর মোড়ক উন্মোচন করেন কবি আজিজার রহমান তাজ। পল্লী কবি জসিম উদ্দীন পরিষদ থেকে মোড়ক উন্মোচন করা হয় দুটি বইয়ের। এ্যাডঃ নুরুল ইসলাম চৌধুরীর ছোটদের গল্প পুতুলের কান্না ও কবি আব্দুরি রশীদ এর আনন্ত প্রেমের উপহার এবং বাংলাদেশ কবিতা ক্লাব থেকে প্রকাশ পাওয়া পেলাম না এক প্যাকেট প্রেমের কবিতা তিনটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন জোটের সভাপতি তৌফিক হাসান ময়না। নির্ধারিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সাহিত্য জিজ্ঞাসার সভাপতি কবি মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, চর্চা সাংস্কৃতিক একাডেমির সভাপতি মাফুজুল ইসলাম রাজ, সংশপ্তক থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান সুজন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জোটের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সিদ্দিকী, সঞ্চালনা করেন জোটের দপ্তর সম্পাদক এইচ আলিম। অনুষ্ঠানে বগুড়ার বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধি, কবি সাহিত্যিক, নাট্যকর্মী উপস্থিত ছিলেন। 
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে সুর সারগাম সঙ্গিত একাডেমী, স্বপন রাঙ্গা খেলাঘর আসর, সপ্তসুর সঙ্গীত একাডেমি, শেরপুর থিয়েটার। 

 

মন্তব্য