| প্রচ্ছদ

ফল নাকি ফলের জুস

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫১ বার। প্রকাশ: ০৩ মার্চ ২০২০ ।

দৈনন্দিন জীবনে প্রচুর ফল খা্ওয়া হয়। তবে খুব বেশি ফলের জুস খাওয়া ঠিক নয়। গাজরের জুসের পরিবর্তে গাজর চিবিয়ে খাওয়া উচিত। তেমনি আপেল জুসের পরিবর্তে আপেল এবং গোটা ফল খেতে হবে।

যে কারণে সবজি এবং ফলের জুস খাওয়া বন্ধ করতে হবে-

ওজন কমানোর জন্য সবুজ ফলের খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। এটি শরীরে পুষ্টির জোগান দিলেও এতে কেমিক্যাল ব্যবহারের ফলে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

১. গোটা সবজি খেলে আঁশ পাওয়া যায় যা হজমে সহায়ক, ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করে। কিন্তু জুসে আঁশের উপস্থিতি নেই বললেই চলে।

২. খাবার চিবিয়ে খাওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ঠিকমতো খাবার চিবিয়ে খেলে ডাইজেসটিভ এনজাইম উৎপন্ন হয় যা খাদ্য থেকে পুষ্টি ভাঙতে সহায়তা করে।

৩. জুস পরিষ্কারকের জন্য সহায়ক হতে পারে। কিন্তু এটি গোটা খাবারের মতো পুষ্টি সরবরাহ করে না। ভেজিটেবল জুস যেমন- বিটরুট বা গাজরের জুস পাকস্থলীতে পরিষ্কারক হিসেবে কাজ করে। ফুসফুস, লিভার, কিডনি, কোলন এবং ত্বক জীবাণুমুক্ত করতে সহায়তা করে।

৪. যারা অ্যাসিডিটি, গ্যাস, বমিভাব এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জুস খাওয়া থেকে বিরত থাকাই ভালো। 

মন্তব্য