| প্রচ্ছদ

তাপস পালের মৃত্যুর আসল কারণ কী? জবাব চাইছে টলিউড

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭৮ বার। প্রকাশ: ০৬ মার্চ ২০২০ ।

শারীরিক অসুস্থতা নাকি ‘হত্যা’? অভিনেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ তাপস পালের মৃত্যুর কারণ নিয়ে তোলপাড় টলিউড। বুধবার মিডিয়ার কাছে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন তাপসের স্ত্রী। এর পরেই টলিউডের অন্দরে প্রশ্ন উঠেছে, ‘অত বড় মাপের অভিনেতারও এমন পরিণতি হতে পারে?’

১৮ ফেব্রুয়ারি মুম্বাইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় অভিনেতার। ৪ তারিখ, বুধবার রাতে তাপসের স্ত্রী নন্দিনী অভিযোগ করেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের চুড়ান্ত অবহেলার ফলেই মারা গিয়েছে তাপস। নন্দিনীর কথায়, “১ তারিখ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর ডাক্তার দেখলেন ওকে। বললেন, তাপসের ‘হাইপোগ্লাইসিমিয়া’ হয়েছে, মানে হঠাৎ করে সুগার কমে গিয়েছে। আমাকে বলা হল, ‘‘আমরা অক্সিজেন দিচ্ছি। আপনি এই ফর্মটা ফিলআপ করে দিন।’’ আমি যখন ওই ফর্মটা ভর্তি করে হাসপাতালকে দিলাম, ওরা জানালেন, এখুনি ৫০ হাজার টাকা দিতে হবে। আমি ওদের বললাম, চিকিৎসাটা শুরু হোক। বাড়ি গিয়ে ৫০ হাজার কেন, যা লাগবে তাই দিয়ে দেব। এখন সঙ্গে ৫০ হাজার নেই। অত টাকা নিয়ে বেরোইনি। কিন্তু, আমার কথায় ওরা কান দিতে চাইলেন না। বললেন, ৫০ হাজার টাকা এখুনি দিতে হবে।”

এই মুহূর্তে ন্যায়বিচারের আশায় মুম্বাইতে রয়েছেন নন্দিনী। স্বামীর এ ভাবে চলে যাওয়া কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না তিনি।

অভিযোগের কথা শুনে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর বলেন, “আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। এ রকম যদি সত্যিই হয়ে থাকে তাহলে এর চেয়ে খারাপ কিছু হতে পারে না। নন্দিনীদির অবশ্যই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় বলেন, “মানুষ এত ভরসা করে বাড়ির লোককে হাসপাতালে ভর্তি করে, তাঁদের উচিত মায়া-মমতা দিয়ে রোগীকে ভাল করা। মানুষ অসহায় হয়ে গিয়েই তো ভর্তি করে। সেখানে এমন একটা ঘটনা! তাপস পালের মত একজন স্টারের সঙ্গেই যদি এমনটা হতে পারে, তাহলে সাধারণ মানুষের কী হবে?”

অভিনেত্রী পায়েল সরকার অভিযোগ শুনে তিনিও শিউরে উঠেন। তিনি বলেন, “নন্দিনীদি সব সময় আমাকে পাশে পাবেন। সত্যিটা সামনে আসা দরকার। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছেও জবাব চাইছি।”

তাপস পালের শেষ যাত্রাতে সঙ্গে ছিলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। সিঙ্গাপুর থেকে ঋতুপর্ণা বলেন, “আমি শকড। তাপসদার মৃত্যু নিয়েই আমি এমনিতেই আপসেট। আর এই খবর জানার পর কী বলব, সত্যিই ভাষা খুঁজে পাচ্ছিনা।”

পরিচালক তুহিন সিংহের ছবি ‘বাঁশি’-ই তাপস পাল অভিনীত শেষ সিনেমা। ঘটনার তীব্র নিন্দা জানালেন তিনিও। বললেন, “কয়েক মাস আগে তাপসদার সঙ্গে শুট করেছি। এক বারের জন্যও মনে হয়নি উনি এতটা অসুস্থ। সেটে সবার সঙ্গে কত হাসি-ঠাট্টা করতেন। কী যে হয়ে গেল। এই সময় নন্দিনীদির পাশে সবার থাকা দরকার।”

হতভম্ব টলিপাড়া। জবাব চাইতে মুম্বই গেছেন নন্দিনী। বললেন, “জবাব না নিয়ে আমার ফেরা হবে না”। ন্যায়বিচার চাইছেন তিনি, বলছেন, ‘ছাড়ব না’। সুত্র-আনন্দবাজার পত্রিকা

মন্তব্য