| প্রচ্ছদ

করোনায় বাড়ছে মৃতের সংখ্যা, ঘরে বন্দী ইতালিবাসী

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৪ বার। প্রকাশ: ১০ মার্চ ২০২০ ।

চীন যদি করোনাভাইরাসের প্রথম হামলার শিকার। মৃত তিন হাজারের বেশি। আর তার পরেই ভয়াবহ পরিস্থিতি ইতালির। মৃতের সংখ্যা ৪৬০ পেরিয়ে গেল।

তাৎপর্যপূর্ণ বিষয়, চীনের সীমান্তে থাকা ১৪টি দেশের মধ্যে একমাত্র ইউরোপীয় দেশ রাশিয়াতে এই ভাইরাস ছড়ায়নি। তেমনই ভারতসহ বাকি ১৩টি সীমান্তবর্তী দেশে ভাইরাস ছড়ালেও মঙ্গলবার পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

অথচ, চীন থেকে অনেক দূরে ইতালি হয়ে উঠেছে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় শিকার। ৪০০ ছাড়িয়ে কর্মে অর্ধ শতাধিক মৃতের দেশ হতে চলছে ইতালি।

বিবিসি জানিয়েছে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ইতালিজুড়ে জনগণকে ঘরে থাকার নির্দেশ এই দেশের সরকারের। এর মধ্যে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা এবং জনসমাগমে না যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সোমবার রোমে প্রধানমন্ত্রী জুজেপ্পে কন্টে বলেন, হাতে আর সময় নেই। তাই সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মুখে থাকা মানুষদের সুরক্ষার জন্য এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। চীনের পর এটি সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত দেশ বলে চিহ্নিত।

ইতালি সরকারের হিসেব দেশের ২০টি এলাকার সবকটিতে ভাইরাস আক্রান্তের খবর মিলেছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, পুরো ইতালি একটি সংরক্ষিত এলাকায় পরিণত হবে। সংক্রমণ ঠেকাতে এবং নাগরিকদের স্বাস্থ্যের সুরক্ষা দিতে দৃঢ় ও কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে করোনাভাইরাসছড়াতে শুরু করে। প্রথমে চীন পরে দ. কোরিয়া, ইরানে ক্রমে বাড়ে মৃতের সংখ্যা। এমনকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও বড়সড় হামলা করছে করোনাভাইরাস। বাড়ছে মৃত্যুর হার।

মন্তব্য