| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় পরকীয়ার জেরে যুবককে হত্যার অভিযোগ

শেরপুর(বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১৮৬ বার। প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০২০ ।

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় পরকীয়ার জের ধরে শামীম হোসেন(২৫) নামে এক যুবককে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার(১৪) মার্চ ভোররাতে উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়নের খিকিন্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শামীম হোসেন ওই গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা শেরপুর থানায় একটি হত্যার অভিযোগ দায়ের করেছেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজনেরা জানান, প্রায় পাঁচ বছর পূর্বে কুসুম্বী ইউনিয়নের খিকিন্দা গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে শামীম হোসেনের সাথে পাশ^বর্তী কাজিকাটা পুকুরপাড় এলাকার আব্দুল মান্নানের মেয়ে সাথী খাতুন(২০) এর বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি সন্তান জন্ম নেয়। কিন্তু এরই মাঝে একই এলাকার রেশমা খাতুন নামে এক মেয়ের সাথে শামীমের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরই জের ধরে গত শুক্রবার রাতে শামীম হোসেন রেশমা খাতুনের নিকটে যায়। বিষয়টি তার স্ত্রী বুঝতে পেরে লোকজন নিয়ে রেশমা খাতুনের বাড়িতে যায়। এসময় শামীমকে ধরে তার স্ত্রীর লোকজন বেধরক মারপিট করে। এ ঘটনায় ক্ষোভে ও অভিমানে শামীম গ্যাসট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। গুরুতর আহত অবস্থায় শনিবার ভোররাতে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। 
এদিকে নিহত শামীম হোসেনের বাবা আব্দুস সালাম দাবি করেন, তার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। আর হত্যার ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে গ্যাসট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার নাটক সাজানো হয়েছে। তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে বলে তিনি শেরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।  তিনি এ ঘটনায় জড়িতদের বিচারের দাবি জানান।
শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) হুমাযুর কবির জানান, যুবক শামীম হোসেনকে হত্যা করা হয়েছে বলে তার বাবা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত হত্যা না আত্মহত্যা তা বলা সম্ভব নয়। রিপোর্ট পাওয়ার পর এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে ওই পুলিশ কর্মকর্তা জানান। 

মন্তব্য