| প্রচ্ছদ

ব্যালকনি কনসার্টে মনোবল খুঁজছে ইতালির অবরুদ্ধ মানুষ

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৯ বার। প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০২০ ।

চীনের পর করোনাভাইরাসের নতুন কেন্দ্রস্থল ইউরোপ। সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত ইতালি। পুরো দেশটিকে কোয়ারেন্টাইন ঘোষণা করা হয়েছে।

কভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ১২ শ'র বেশি ইতালীয় নাগরিক। সংক্রমিত হয়েছে সাড়ে ১৭ হাজারের মানুষের মধ্যে। এমন পরিস্থিতিতে সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সিনেমা হল, থিয়েটার স্টুডিও, খেলাধুলা, যে কোনো ইভেন্ট সবকিছুই বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

বন্ধ সব বার, রেস্তোরাঁ, সেলুন, বিউটি পার্লার, দোকানপাট। শুধু নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের সুপারমার্কেট, খাবারের দোকান, ওষুধের দোকান খোলা আছে।

নাগরিকেরা কার্যত ঘরের মধ্যে অবরুদ্ধ। শহরগুলো ফাঁকা হয়ে গেছে। রাস্তাঘাট, স্টেশনে সুনসান নীরবতা। থেমে গেছে শিশুদের কোলাহল।

তবে আতঙ্কিত মানুষ এর মধ্যেও নিজেদের মধ্যে মনোবল ধরে রেখেছে। জানালা ও ব্যালকনিতে এসে তারা জোর গলায় গাইছেন, নাচছেন এমনকি সাউন্ডবক্সে ছেড়ে দিয়েছেন গান। এ যেন ব্যালকনি কনসার্ট। ভয়কে জয় করে নতুন এক উৎসবে মেতে উঠেছেন তারা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট জানায়, মধ্য ইতালির তুস্কেনি অঞ্চলের শিন শহর থেকে শুরু হয়েছে বেঁচে থাকার এই অনুপ্রেরণা। ফ্লোরেন্স, ন্যাপলস, তুরিন শহরের মানুষরাও গাইছে-নাচছে জানালা এসে, ব্যালকনিতে বের হয়ে। অনেকে বাঁশি, গিটারসহ নানা ধরনের যন্ত্র বাজাচ্ছেন। জানালা থেকে জানালায় সৃষ্টি হয়েছে সুরের লহর।

এসব ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ছে। ভিউ হচ্ছে লাখ লাখ। খবর দেশ রুপান্তর

রাফসান গালিব-এর লেখা অবলম্বনে

মন্তব্য