| প্রচ্ছদ

নওগাঁর সাপাহারে জরিমানা করায় ওষুধের দোকান বন্ধ ঘোষণা

নওগাঁ (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৩৯ বার। প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০২০ ।

নওগাঁর সাপাহারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর আইনে জরিমানা করায় একটি খোলা রেখে বাকী সব ওষুধের দোকান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে উপজেলার বনিক সমিতির কার্যালয়ে বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি উপজেলা শাখার পক্ষ থেকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণাদেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সমিতির উপদ্ষ্টো মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, ওষুধের দোকার পরিদর্শন ও দন্ড প্রদানের জন্য ড্রাগ সুপার রয়েছেন। উপজেলায় ৮৯টি লাইসেন্সপ্রাপ্ত ও ১৪১টি বিনা লাইসেন্সের ওষুধের দোকান রয়েছে। এসব দোকান ড্রাগ সুপার ও তাঁর লোকজন নিয়মিত পরিদর্শন করে আসছেন। ওই দপ্তরের নিয়ম ও পরামর্শ অনুযায়ী উপজেলার লাইসেন্স প্রাপ্ত দোকান গুলোতে ওষুধের কেনা-বেচা চলে আসছে।

এদিকে কোন নিয়ম না মেনে যখন-তখন জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের লোকজন অভিযান চালিয়ে ওষুধের দোকান মালিকদের অহেতুক জরিমানা করছেন। উপজেলার কোন দোকানেই অবৈর্ধ মালামাল বিক্রি করা হয়না। অথচ উপজেলায় প্রায় ১৪১টি ওষুধের দোকানে লাইসেন্স নেই, তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন না করে যুক্তিহীন ভাবে বার বার লাইসেন্স প্রাপ্ত দোকান গুলোতে এসে মালিকদের জরিমানা করে অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, হয়রানী মূলুক এধরনের পদক্ষেপ বন্ধ করা না হলে উপজেলার লাইসেন্স প্রাপ্ত দোকান গুলো অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ থাকবে। তবে জীবন বাঁচানোর জন্য উপজেলার একটি মাত্র দোকান খোলা থাকবে বলে জানান প্রতিবাদকারীরা।

এসময় ওই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সমতিরি সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বাদল, সহ-সভাপতি অনিল চন্দ্র পাল,উপদেষ্টা আক্তার হোসেন ও অর্জূণ কুমার সাহাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এদিকে সোমবার বেলা ১১টার দিকে ভ্রাম্যমান আদালত মেয়াদ উত্তীর্ন ওষুধ বিক্রি করার দায়ে উপজেলার পুপলার মেডিক্যাল স্টোরের মালিককে ৫ হাজার টাকা ও বেশী দামে মাস্ক বিক্রির করার দায়ে খুশবো আতর হাউজের মালিককে ১ হাজার টাকা জরিমানা করে বলে উপজেলা স্যানেটারি ইন্সপেক্টর সাখাওয়াত হোসেন জানান।

মন্তব্য