| প্রচ্ছদ

সিরাজগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যা, স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৪ বার। প্রকাশ: ১৮ মার্চ ২০২০ ।

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী সোনাতন চন্দ্র ভৌমিককে (৫৫) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে একলাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বুধবার বেলা ১২টার দিকে সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত সোনাতন চন্দ্র ভৌমিক জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার বোয়ালিয়া মালিপাড়া গ্রামের বৈদ্যচন্দ্র ভৌমিকের ছেলে। খবর সমকাল অনলাইন 

ঘটনার পর থেকে সোনাতন চন্দ্র ভৌমিক স্বপরিবারে পলাতক রয়েছেন। 

মামলার বিবরণীতে জানা যায়, ১৯৮৭ সালে সোনাতন চন্দ্র ভৌমিকের সঙ্গে পাশ্ববর্তী কামারখন্দ উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের হরিপদ দের মেয়ে স্বপ্না রানী দের বিয়ে হয় । বিয়ের সময় দাবিকৃত এক লাখ টাকা যৌতুকের মধ্যে ৬০ হাজার টাকা পরিশোধ করে স্বপ্নার পরিবার। বাকি ৪০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য সোনাতন চন্দ্র ভৌমিক তার স্ত্রীকে প্রায়ই নির্যাতন করতেন। এরই জেরে ২০০১ সালের ২ আগষ্ট স্বপ্নাকে মারধোর করে শ্বাসরোধে হত্যা করে তার স্বামী। এ ঘটনায় স্বপ্না রানীর মা রাজু বালা দে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে বুধবার আদালত আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেন।

মন্তব্য