| প্রচ্ছদ

ফাঁসির আগে ছেলেকে ‘কচুরি’ খাওয়াতে চান মা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৪ বার। প্রকাশ: ১৯ মার্চ ২০২০ ।

ছেলের ফাঁসির আর মাত্র একদিন বাকি আছে। তার আগেই ভারতের আলোচিত নির্ভয়া মামলার অন্যতম আসামি বিনয় শর্মার মা ছেলেকে শেষবারের মতো তার প্রিয় খাবার ‘পুরী, সবজি, কচুরি' খাওয়াতে চান।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ‘নির্ভয়া’ মামলার চার আসামি মুকেশ সিং (৩২), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) ও অক্ষয়কুমার সিংয়ের (৩১)।

২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর দিল্লির এক তরুণীকে ধর্ষণ ও তার ওপরে রড দিয়ে অমানুষিক অত্যাচার চালায় অভিযুক্তরা। পরে ২৯ ডিসেম্বর মারা যান ওই তরুণী। সারা দেশে তরুণীর নাম হয় ‘নির্ভয়া’।

এদিকে বৃহস্পতিবার দিল্লির এক আদালত জানিয়েছে আসামিদের কোনো আইনি পথ আর বাকি নেই।

দক্ষিণ দিল্লিতে রবিদাস ক্যাম্পের বাইরে নিজের বাড়ির বাইরে এসে বললেন, ‘আপনি কে? কী চান? বেতরে কেউ নেই। আমার স্বামী কাজে গেছেন। আমি বিনয় শর্মার মা।'

৫০ বছর বয়সী বিনয় শর্মার মা ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, ‘কী লিখবেন? আপনার লেখায় কিছু বদলাবে? এখন পর্যন্ত আপনাদের লেখায় কিছু হয়েছে কি? যদি ভগবান চান তাহলে ও বেঁচে যাবে। করোনাভাইরাসের দিকে দেখুন। ভগবানই সব তৈরি করেন। তিনিই ঠিক করেন কে বাঁচবে কে মরবেন। এতে মানুষের কোনো হাত নেই। না আপনার, না আমার।'

আসামির মায়ের প্রশ্ন, ‘তিহার জেল কর্মীরা আমাকে কখনোই কোনো খাবার বা অন্য কিছু খেতে দিতে দেননি ওকে। যদি এবার তারা অনুমতি দেন তাহলে আমি ওর জন্য পুরী, সবজি, কচুরি নিয়ে যেতে চাই।'

ফাঁসির আসামির মা জানান, শিগগিরই ছেলেকে শেষবারের মতো দেখতে জেলে যাবেন। এরআগে গত ৫ মার্চ আদালতে আসামিদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি করা হয়।

রাম সিং ও মুকেশ সিংয়ের পরিবার এলাকা ছেড়ে চলে গেলেও পবন গুপ্তা ও বিনয় শর্মার পরিবার রয়েছেন আগের এলাকাতেই। পবন গুপ্তার পরিবার সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হয়নি।

মন্তব্য