| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা দুই প্রবাসীর পাহারায় গ্রাম পুলিশ

আমিনুল ইসলাম শ্রাবণ
পঠিত হয়েছে ১১৩৯ বার। প্রকাশ: ১৯ মার্চ ২০২০ ।

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় নোভেল করোনা ভাইরাস পর্যবেক্ষনের জন্য গ্রাম পুলিশের পাহারায় দুই প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশদের পাহারার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামের রেফাজ উদ্দিরে ছেলে সাইফুল ইসলাম (৫৫) দীর্ঘদিন ধরে মালয়েশিয়ায় শ্রমিকের কাজ করতেন। বুধবার সকালে মালয়েশিয়া থেকে তিনি বাড়িতে ফিরেছেন। এসময় বিমানবন্দর থেকে করোনাভাইরাস সতর্কতায় তাকে নিজবাড়িতে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়। তার শরীরে জ্বর, সর্দি ও কাশি রয়েছে। তিনিসহ তার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৭জন। এই প্রবাসীর ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টানের নির্দেশনা নিশ্চিত করার জন্য পাহারাদার হিসেবে ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ পাপন মিয়াকে নিযুক্ত করা হয়েছে। 

অপরদিকে উপজেলা মথুরাপুর ইউনিয়নের অলোয়া গ্রামের জুড়ান শেখের ছেলে আসমত আলী (৪০) কাতারে কাজ করতেন। গত ০৫ মার্চ তিনি বাড়িতে ফিরেছেন। তিনিসহ তার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৭জন। আসমত আলীর ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশনা নিশ্চিত করার জন্য পাহারাদার হিসেবে মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ দিলীপ কুমারকে নিযুক্ত করা হয়েছে। 

ধুনট উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা (ইউএনও) রাজিয়া সুলতানা জানান, বিদেশ ফেরৎ ব্যক্তিদের নিজের বাড়িতে বাধ্যতামূলক ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা রয়েছে। কিন্তু তারা এ নির্দেশনা মানছেন না। এটা নিশ্চিত করতে গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 
 

মন্তব্য