| প্রচ্ছদ

অতিরিক্ত গোমূত্র পানে হাসপাতালে রামদেব? জানুন আসল ঘটনা

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬২ বার। প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২০ ।

করোনাভাইরাস আতঙ্কে গোটা বিশ্ব তখন হিন্দু মহাসভার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, করোনা রুখতে একমাত্র 'মহৌষধি' হলো গোমূত্র। আর এই দাবিকে কেন্দ্র করেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় বহু পোস্ট।

সম্প্রতি এমনই এক ফেসবুক পোস্টে দাবি করা হয়েছে, করোনাভাইরাসের হানা থেকে বাঁচতে আগাম সতর্কতা হিসেবে গোমূত্র পান করেছেন যোগগুরু বাবা রামদেব। আর এর মাত্রা অত্যধিক হয়ে যাওয়াতেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি।

দাবির সপক্ষে রামদেবের একটি ছবিও পোস্ট করা হয়েছে। যেখানে হাসপাতালে ভর্তি থাকতে দেখা গেছে তাকে। ছবিতে দেখে প্রাথমিকভাবে যোগগুরু অসুস্থ বলেই মনে হচ্ছে। তাকে ঘিরে রয়েছেন অনুগামীরাও। ফেসবুকের বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট থেকে একই ছবি ও দাবি পোস্ট করা হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ছবিটি আসলে ২০১১ সালের। কালো টাকার বিরুদ্ধে টানা অনশন করা রামদেব যেদিন তা প্রত্যাহার করেন, সেদিন হাসপাতালে ওই ছবি নেয়া হয়েছিল। একটানা অনশনে থাকার ফলে তাকে দুর্বল দেখাচ্ছিল। তবে করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে রামদেবের গোমূত্র খাওয়ার দাবি আদতে মিথ্যা।

ইংরেজিতে ‘Baba Ramdev Weak Hospital’ লিখে গুগলে সার্চ দিলে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত আসল ছবিটির সন্ধান মেলে। ওই খবর অনুযায়ী, দেরাদুনে অনশন ভঙের পর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল রামদেবকে। ২০১১ সালের ১২ জুন ওই ছবিটি তোলা হয়েছিল।

এছাড়াও বাবা রামদেবের মুখপাত্র তিজারওয়ালা এসকে’র পক্ষ থেকে গত ৫ মার্চ একটি টুইটে সাম্প্রতিক জল্পনায় পানি ঢেলেছেন। লিখেছেন, এসবই ভুয়া খবর। লজ্জারও বিষয়। সম্মানীয় রামদেব সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন। বিভিন্ন খবরের চ্যানেলকেও সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য