| প্রচ্ছদ

বাড়ছে আতঙ্ক, কলকাতায় মিলল দ্বিতীয় করোনা আক্রান্তের সন্ধান

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৬ বার। প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২০ ।

কলকাতায় মিলল দ্বিতীয় করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সন্ধান। সংবাদসংস্থা পিটিআইয়ের খবর অনুসারে, লন্ডন ফেরত এক যুবকের দেহে করোনা ভাইরাসের ইতিবাচক লক্ষণ মিলেছে। সম্প্রতি দিল্লি বিমানবন্দর হয়ে কলকাতায় ফেরেন তিনি। জানা গেছে, বিদেশ থেকে ফেরার পর নিজের শরীরে করোনা সংক্রমণের লক্ষণ দেখা দেওয়ায় তিনি ঘরবন্দি করে ফেলেন নিজেকে। পরে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নজরে রয়েছেন তিনি। কিছুদিন আগে আরেকজনের শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে কলকাতায়। কয়েকদিন ধরেই পথঘাট প্রায় শুনশান। আতঙ্কে ঘর থেকে বের হচ্ছেন না কলকাতাবাসী। আর যাঁরা বের হচ্ছেন তাঁরাও মুখে মাস্ক পরে সতর্কতা অবলম্বন করছেন।

রাজ্যে নতুন করে করোনা সংক্রমণে সম্ভাবনা দেখা দিলেও রাজ্যবাসীকে আতঙ্কগ্রস্ত না হওয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করেছে রাজ্য সরকার। পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য বিভাগের একজন উর্ধ্বতন আধিকারিক জানান যে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে কলকাতার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৭ জনের মধ্যে ২ জন কিছুদিন আগে ইতালি গিয়েছিলেন । সেখান থেকে দেশে ফিরে আসার পরেই তাঁদের শরীরে করোনা ভাইরাস সংক্রামণের লক্ষণ মেলে। ওই ৭ জনের কাছ থেকেই রক্তের নমুনা সহ মুখের লালার নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে ওই নমুনাগুলোকে।

এদিকে রাজ্যে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় ব্যবস্থা নিচ্ছে রাজ্য সরকারও। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে, রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগ এই মারণ ভাইরাসের সঙ্গে যুঝতে আপাতত দুই লক্ষ মাস্ক ও ৩০,০০০ গ্লাভস সরবরাহ করবে। পাশাপাশি রাজ্য সরকার ১০,০০০ থার্মাল স্ক্যানার এবং ৩০০ টি ভেন্টিলেশন মেশিনও অর্ডার করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়াও কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে আরও ১০০ অতিরিক্ত বেডের ব্যবস্থা করা হচ্ছে, ওদিকে রাজারহাটে রাজ্যের ব্যবস্থাপনায় একটি বিচ্ছিন্নতা ওয়ার্ড রাখা হয়েছে যেখানে ৫০০ টি অতিরিক্ত বেড থাকছে। পাশাপাশি এমআর বাঙ্গুর হাসপাতাল ১৫০ টি বেড এবং আরজি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে আরও ৫০ টি বেডের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।

এদিকে গোটা দেশেও বাড়ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ, বৃহস্পতিবারই ভারতে চতুর্থ করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসে। পঞ্জাবের বাসিন্দা এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয় ওই মারণ ভাইরাসের কারণে। জানা গেছে, জার্মানি থেকে ইতালি হয়ে দু'সপ্তাহ আগে দেশে ফিরেছিলেন ৭২ বছরের ওই বৃদ্ধ। এই নিয়ে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৬৯ জনে, জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। এনডি টিভি

মন্তব্য