| প্রচ্ছদ

উকিল হওতো এইসি

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪২ বার। প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২০ ।

টুইটার হিরো সীমা কুশওয়াহা ? কিন্তু কে এই সীমা কুশওয়াহা?
ইনি সেই আইনজীবী যিনি ৭ বছর ধরে নির্ভয়ার হয়ে আদালতে যুক্তিতর্কের লড়াই লড়েছেন, ইনি সেই আইনজীবী যিনি ৭ বছর ধরে শুধু মানবিকতার খাতিরেই মামলা লড়েছেন, ইনি সেই আইনজীবী যিনি ৭ বছর পরিশ্রমিক হিসাবে একটি পয়সাও নেননি, ইনি সেই আইনজীবি যিনি ৭ বছর ধরে নির্ভয়ার পরিবার ও বাবা-মা’র সুখ দুখের সঙ্গী হয়ে আছেন।  
নির্ভয়ার গণধর্ষণ ও হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত মুকেশ, অক্ষয়, বিনয় এবং পবনকে শুক্রবার ভোরেই ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়, স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে গোটা দেশ। গত সাত বছর ধরে আইনের লড়াই চালিয়ে যেতে হয়েছে নির্ভয়ার বাবা-মাকে, দিতে হয়েছে ধৈর্য্যের পরীক্ষাও। অবশেষে ন্যায়বিচার পেলেন নির্ভয়া। ফাঁসির একদিন আগে বৃহস্পতিবারও দিল্লি হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টে বাঁচার জন্য আবেদন করে অপরাধীরা। কিন্তু তাদের সেই চেষ্টা বিফলে যায়। নজিরবিহীনভাবে একসঙ্গে ৪ আসামিকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয় দিল্লির তিহার জেলে।
কথায় বলে "ভাগ্য সাহসীদের সঙ্গে থাকে"। শুক্রবার সাফল্যের হাসি হাসেন আইনজীবী সীমা কুশওয়াহাও। নির্ভয়া মামলার ৪ আসামিকে ফাঁসিতে ঝোলানোর সঙ্গে সঙ্গে টুইটারে অসংখ্য মানুষ অভিনন্দনের বন্যায় ভাসিয়ে দিয়েছেন ওই আইনজীবীকে। শুক্রবার দিনভর টুইটারে একজনই 'হিরো', সীমা কুশওয়াহা। তাবদ দুনিয়ার মানুষ টুইটারে সীমাকে এখনও অভিনন্দন জানিয়ে যাচ্ছেন।  এনডিটিভি অবলম্বনে

মন্তব্য