| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

আদমদিঘী(বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৫৭৮ বার। প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২০ ।

বগুড়ার আদমদীঘিতে শ্রাবনি (১৪) নামের ৯ম শ্রেনির এক স্কুলছাত্রী তার মায়ের নিকট অভিমান করে চিরকুট লিখে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।  শুক্রবার সকাল ৯টায় উপজেলার সালগ্রাম তাদের বাড়ির মাটির ঘরের দ্বিতলায় ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দেয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শ্রাবনি ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসি ফারুক হোসেনের মেয়ে ও আদমদীঘি গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের ৯ম শ্রেনির ছাত্রী। পুলিশ দুপুরে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে প্রেরন করেছে। এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।
আদমদীঘি উপজেলার সালগ্রামের সৌদি প্রবাসি ফারুক হোসেনের মেয়ে শ্রবনি পারিবারকি কলহের কারনে মায়ের সাথে অভিমান চলে। শুক্রবার সকাল ৯টায় খাবার জন্য শ্রাবনি তার শয়ন মাটির ঘরের দ্বিতলায় ডাকতে গিয়ে দেখতে পান সে ফ্যানের সাথে গলায় ওড়নার ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত রয়েছে। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়া হলে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে। তার পড়ার টেবিলে একটি চিরকুট পাওয়া যায় তাতে লিখা ছিল “মা তুমি ভাল থেক তুমি বলো আমার মুখ দেখলে ঘৃনা লাগে তাই আমার মুখ আর কোনদিন তোমাকে দেখাবনা”।

আদমদীঘি থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশ ময়নাতদন্তে জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

 

মন্তব্য