| প্রচ্ছদ

বগুড়ার শেরপুরে করোনা প্রতিরোধে থানার প্রবেশ মুখে বেসিন-হ্যান্ডওয়াশ

শেরপুর(বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১২০ বার। প্রকাশ: ২১ মার্চ ২০২০ ।

মরণব্যাধি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অনন্য উদ্যোগ নিয়েছেন বগুড়ার শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির। তিনি থানায় প্রবেশ মুখে স্থাপন করেছেন একটি বেসিন। আর বেসিনের পাশেই রাখা হয়েছে স্যাভলন সাবান। রয়েছে একটি বিলবোর্ডও।  সেখানে লেখা রয়েছে “বেসিনে ভালোভাবে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে থানায় প্রবেশ করুন”। আর এই কার্যক্রমটি তদারকির জন্য পুলিশের একজন কনস্টেবলকেও দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি থানায় আসা ব্যক্তিদের হাত  ধোয়ার পর ভেতরে প্রবেশের অনুমতি দিচ্ছেন।  শনিবার (২১মার্চ) থানায় গিয়ে এমন দৃশ্য দেখা যায়। স্থানীয় ডেকোরেটর থেকে সংগ্রহ করে এই অস্থায়ী বেসিন বসানো হয়েছে। এসময় কথা হয় থানায় আসা উপজেলার সাধুবাড়ী গ্রাম থেকে মোফাজ্জল হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, তিনি একটি সাধারণ ডায়েরী করতে থানা এসেছেন। তিনি বেসিনে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ভেতরে যাওয়ার অনুমতি পান। করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করতে পুলিশের এমন উদ্যোগ অনেককেই উৎসাহিত করবে। পাশাপাশি থানায় আসা ব্যক্তিদের এই ভাইরাস নিয়ে আরও সচেতন করে তুলবে।
শেরপুর থানায় ডিউটি অফিসার পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক নান্নু মিয়া বলেন, থানায় পুলিশের কাছে সেবা নিতে আসা সবাইকে হাত ধুয়ে ভেতরে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হচ্ছে। এতে পুলিশসহ আগতরাও অনেকটা নিরাপদ থাকবেন। প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত থানায় আসা কয়েকশ’ নারী-পুরুষ হাত ধুয়ে থানায় ঢুকেছেন বলে জানান তিনি।
শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে আমাদের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিভিন্ন ধরনের মানুষের আগমন ঘটে থানায়। নিজেদের সুরক্ষা এবং সকলকে সচেতন করতেই এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। থানায় প্রবেশের পূর্বেই যেন সবাই স্যাভলোন সাবান দিয়ে ভালোভাবে হাত, মুখ ধুয়ে থানায় প্রবেশ করতে পারে তার জন্য স্থাপন করা হয়েছে বেসিন। আমরা চাই সকল মানুষ নিজ নিজ জায়গা থেকে সচেতন হোক। তারপরও হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা সকল বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের সার্বিক খোঁজ খবর এবং পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।

 

মন্তব্য