| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় হাত-পাঁ বেধে ছুরিকাঘাতে এক কৃষককে হত্যা

শেরপুর(বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৯৫ বার। প্রকাশ: ২৫ মার্চ ২০২০ ।

বগুড়ার শেরপুরে নিখোঁজ হওয়ার ৩৬ ঘন্টার মাথায় আব্দুর রশিদ (৪২) নামের এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ছুরিকাঘাতে তাকে হত্যা করা হয়। বুধবার (২৫মার্চ) দুপুরের দিকে ময়না তদন্তের জন্য নিহতের লাশ বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত আব্দুর রশিদ উপজেলার খামারকান্দি ইউনিয়নের ঘোড়দৌড় গ্রামের ময়েজ উদ্দিনের ছেলে। এরআগে গত মঙ্গলবার (২৪মার্চ) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে বাড়ির পাশের একটি খালের মধ্যে নৌকায় হাত-পাঁ বাধা অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করেন পুলিশ। নিহতের স্বজনরা জানান, কৃষক আব্দুর রশিদ গত সোমবার (২৩ মার্চ) বিকেলে বাড়ির পাশে ভুট্টার জমিতে কাজ করার কথা বলে বের হন। এরপর থেকে তাঁর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে গ্রামের একটি বিলে মাছের খাদ্য দেয়ার কাজে ব্যবহৃত নৌকার মধ্যে স্থানীয়রা তার লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেন। এরপর রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনে। নিখোঁজ হওয়া ওই কৃষকের পেটে ধারালো চাকু ঢুকানো এবং হাত-পা বাধা অবস্থায় ছিল। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, নিহত ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়ার শজিমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরেই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে হত্যাকাণ্ডের নানাদিক সামনে নিয়ে তদন্তকাজ চলছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যেই এই হত্যাকাণ্ডের আসল রহস্য উম্মোচিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এছাড়া এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। পাশাপাশি উক্ত ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

 

মন্তব্য