| প্রচ্ছদ

সম্পর্কের শুরুতেই মনে রাখা চাই যে ৮ বিষয়

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১২১ বার। প্রকাশ: ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮ । আপডেট: ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮ ।

সম্পর্ক ভাঙার হার বাড়ছেই দিন দিন। বিভিন্ন কারণে সম্পর্কে টানাপড়েন শুরু হচ্ছে। এক পর্যায়ে হাল ছেড়ে দিয়ে মুখ থুবড়ে পড়ছে অনেকদিনের সম্পর্ক। এমনটি যেন না হয় সেজন্য সম্পর্কের শুরুতেই মনে রাখতে হবে কিছু বিষয়। দীর্ঘমেয়াদী ও সুষ্ঠু সম্পর্কের জন্য শুরুটা হওয়া চাই ঠিকঠাক। 


১। অধিকার দেখানো শুরু করবেন না

সম্পর্কের শুরুতেই সঙ্গীর উপর অধিকার দেখাতে যাবেন না।। এটি সুন্দর ও স্বাভাবিক সম্পর্ক গড়ে ওঠার অন্তরায়। শুরুতেই একে অন্যকে জানুন, দুইজন আনন্দময় সময় কাটান একসঙ্গে।

২। সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়ার জন্য তাড়াহুড়া করবেন না

সম্পর্কের শুরুতেই তাড়াহুড়া করতে যাবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে। বরং সময় নিয়ে দুজনের ভালো লাগা, মন্দ লাগা নিয়ে আলোচনা করুন। একসঙ্গে সময় কাটাতে চেষ্টা করুন।

৩। কথা শোনার অভ্যাস করুন

শুধু নিজের মনের কথা জানালেই হবে না, অপর পক্ষের কথাও মনোযোগ দিয়ে শোনার অভ্যাস করুন। এতে নিজেদের বোঝাপড়া বাড়বে।

৪।  সম্পর্কে সততা অবলম্বন করুন

যেকোনো সম্পর্কেই সৎ থাকা খুব জরুরি। শুরুতেই আপনার সম্পর্কে সত্যগুলো সঙ্গীকে জানিয়ে দিন। নিজেকে জাহির করার জন্য ভুল তথ্য কিংবা চিন্তা শেয়ার করবেন না। এটি দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্কের অন্তরায়।

৫। জোর করবেন না

কোনও বিষয়ে জোরজবরদস্তি করবেন না। বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করা, বন্ধুদের সঙ্গে পরিচয় করা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে শুরুতেই চাপ প্রয়োগ করবেন না সঙ্গীর উপর। তাকে সময় দিন প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য।  

৬। সম্মান করুন সঙ্গীর মতামতকে  

আপনার সঙ্গে সঙ্গীর মতামত ও চিন্তা ভাবনা ষোলোআনা মিলবে এমন কোনও কথা নেই। মনে রাখবেন, প্রতিটি মানুষ যেমন আলাদা, তেমনি তাদের চিন্তাভাবনাও আলাদা। একসঙ্গে থাকার জন্য প্রত্যেকের মতামতকে সম্মান করা জরুরি।  

৭। স্বাধীনতায় বাধা দেবেন না

সঙ্গীর স্বাধীনতা হরণ হয় এমন কাজ করবেন না। মনে রাখবেন, বন্দী অবস্থায় কেউ বেশিদিন থাকতে পারে না।

৮। সঙ্গীর আত্নসম্মানে আঘাত দেবেন না

সঙ্গীর আত্নসম্মানবোধে আঘাত করে এমন কোনও কাজ করবেন না। যেমন অন্যের সঙ্গে তুলনা করা, বন্ধুদের সামনে অপমান করা কিংবা তাকে ছোট করে কোনও কথা বলা।


তথ্য: গ্লোপিঙ্ক

মন্তব্য