| প্রচ্ছদ

১৪শ’ বছরে প্রথমবার রমজানে মুসল্লিবিহীন আল-আকসা মসজিদ

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৭৪ বার। প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০২০ ১৭:৪০:৫৬ ।

প্রতিবছরই পবিত্র রমজান মাসজুড়ে একসঙ্গে হাজার হাজার মানুষ পাশাপাশি দাঁড়িয়ে জামাতে নামাজ পড়েন আল-আকসা মসজিদে। মাসের শেষের দিকে সেখানে মুসল্লির সংখ্যা লাখও ছাড়িয়ে যায়। মসজিদটিতে এই ঘটনা ঘটছে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই, অর্থাৎ প্রায় ১৪শ’ বছর ধরে। তবে এ বছর সব হিসেব-নিকেশ বদলে দিল প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো রমজান মাসেও মুসল্লিশূন্য থাকবে মুসলিমদের কাছে তৃতীয় পবিত্রতম এ মসজিদ।

ফিলিস্তিনে করোনা মহামারির কারণে সবধরনের জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বন্ধ স্কুল-কলেজ, রেস্টুরেন্ট, বিনোদনকেন্দ্র। স্থগিত করা হয়েছে মসজিদে জামাতে নামাজ আদায়ও।

পূর্ব জেরুজালেমের বাসিন্দা আম্মার বাকির বলেন, ‘কোনও মুসল্লি নেই, কোনও মানুষ নেই। ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর আল-আকসা মসজিদ বন্ধের ব্যাপক প্রভাব পড়েছে।’

আল-আকসার পরিচালক শেখ ওমর আল-কিসোয়ানি বলেন, ‘‘এমন সিদ্ধান্ত ১৪শ’ বছরের মধ্যে প্রথমবার নেয়া হলো। এটা খুবই কঠিন, এতে সবার মনেই কষ্ট হচ্ছে।’’

মহামারির কারণে গত ২২ মার্চ আল-আকসা মসজিদে জামাতে নামাজ আদায় বন্ধ ঘোষণা করে জেরুজালেম ইসলামিক ওয়াকফ কাউন্সিল। গত ১৬ এপ্রিল তারা জানায়, এ নিষেধাজ্ঞা এবারের রমজান মাস জুড়েও অব্যাহত থাকবে। সবাইকে তারাবিহ’র নামাজ বাড়িতেই আদায় করার অনুরোধ জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে নামাজ আদায়ে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও পাঁচ ওয়াক্তেই আল আকসায় যথারীতি আজান দেওয়া হবে।

ফিলিস্তিনে এ পর্যন্ত অন্তত ৩৩৫ জনের শরীরে ধরা পড়েছে নভেল করোনাভাইরাস, মারা গেছেন দুইজন।

সূত্র: রয়টার্স, আনাদোলু এজেন্সি

মন্তব্য