| প্রচ্ছদ

বাবার ‘গুপ্তধন’ পেলেন যেন সত্যজিতের ছেলে সন্দীপ

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭০ বার। প্রকাশ: ২৭ এপ্রিল ২০২০ ২১:০৬:২৭ ।

ফেলুদাপ্রেমীদের জন্য দারুণ খবর। দক্ষিণ কলকাতার বিশপ লেফ্রয় রোডে সত্যজিৎ রায়ের বাড়িতে বাবার ‘গুপ্তধন’ খুঁজে পেয়েছেন ছেলে সন্দীপ রায়। এতদিন এই গুপ্তধনের কথা কেউ জানতেনও না, টেরও পাননি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, সত্যজিৎ রায়ের এই ফেলে যাওয়া ‘গুপ্তধন’-এর মধ্যে রয়েছে ১০০টি ছবি, যেগুলি তিনি নিজেই তুলেছিলেন।

১ হাজার অদেখা নেগেটিভ, যেগুলো বেশিরভাগই অস্কারজয়ী পরিচালকের প্রথমদিকের সিনেমাগুলোর স্টিল। এরই সঙ্গে সন্দীপ পেয়েছেন বেশ কিছু চিঠি ও টেলিগ্রাম, বিশ্বের নামী ব্যক্তির কাছ থেকে এগুলো পান সত্যজিৎ। প্রেরকের তালিকায় রয়েছেন ফ্রাঙ্ক কাপরা, আর্থার সি ক্লার্ক, আকিরা কুরোসায়া ও রিচার্ড অ্যাটেনবরো।

‘পথের পাঁচালি’র শুটিংয়ের সময়কার বেশ কিছু স্টিল ছবির নেগেটিভ পেয়েছেন সন্দীপ। এগুলো কখনই প্রিন্ট হয়নি বলে তার ধারণা।

১৯৫৯ পর্যন্ত রায় পরিবারের ঠিকানা ছিল দক্ষিণ কলকাতার ৩১, লেক এভিনিউ। এর পর ৩, লেক টেম্পল রোডের বাড়িতে যান তারা। সব শেষ ঠিকানা হয় ১/১ বিশপ লেফ্রয় রোড।

বাড়ি বদলের সময় কখনোই কোনো জিনিস-কাগজপত্র ফেলে দেওয়া হয়নি। কারণ সন্দীপ কখনওই চাননি, বাবার গুরুত্বপূর্ণ কিছুই হাতছাড়া হোক। তবে এমন অবসর পেয়ে সেগুলো খুঁটিয়ে খতিয়ে দেখার অবকাশ পেয়েছেন সন্দীপ। কাজেও লেগেছে।

মন্তব্য