| প্রচ্ছদ

যুক্তরাষ্ট্র ‘নির্লজ্জ মিথ্যা’ বলছে, ট্রাম্পের বিষোদগারের জবাবে চীন

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭০ বার। প্রকাশ: ২৯ এপ্রিল ২০২০ ১৬:৫৯:৩০ ।

মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বময় ছড়ানোর জন্য চীনকে দোষারুপ করছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ধারাবাহিক বিষোদগারের জবাবে চীন বলছে, যুক্তরাষ্ট্র নির্লজ্জ মিথ্যাচার করছে। খবর ডয়েচে ভেলের।

কোভিড-১৯ বিশ্বজুড়ে সংক্রমণের জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প লাগাতার চীনের দিকে আঙুল তুলছিলেন। তার জবাবে বেইজিং জানালো, যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিবিদরা ‘নির্লজ্জ মিথ্যা’ বলছেন। চীনের দাবি, যুক্তরাষ্ট্র নিজের ব্যর্থতা আড়াল করতে মানুষের চোখ অন্য দিকে ঘোরানোর চেষ্টা করছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্টকে সরাসরি আক্রমণ না করে বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিবিদরা নির্লজ্জ ভাবে অসত্য প্রচার করছেন।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের দাবি, যুক্তরাষ্ট্র মহামারি মোকাবেলা করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। সেই ব্যর্থতা ঢাকতেই তারা চীনের দিকে মানুষের দৃষ্টি ঘোরানোর চেষ্টা করছে।

উহানের যে ল্যাবরেটরির বিরুদ্ধে ভাইরাস ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে, তার প্রধানও মুখ খুলেছেন। রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। যারা এ সব কথা বলছেন, তাদের কাছে কোনো তথ্য সূত্র নেই। সম্পূর্ণ মনগড়া অভিযোগ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, প্রায় এক মাস ধরে প্রায় প্রতিদিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীন এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে দায়ী করছেন করোনা মোকাবেলায় ব্যর্থতার জন্য। তার অভিযোগ, চীনের গাফিলতিতেই করোনা সংক্রমণ বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে।

শুধু তাই নয়, এর আগে ট্রাম্প অভিযোগ করেছিলেন, উহানের ভাইরোলজির ল্যাবরেটরি থেকে করোনা ভাইরাস ছড়ানো হয়েছে। এর বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে বলেও জানিয়েছিলেন ট্রাম্প। সোমবারেও চীনের বিরুদ্ধে তদন্তের হুমকি দিয়েছেন তিনি। এসবের জবাব দিল চীন।

উল্লেখ্য, চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে ১০ লাখ ৩৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে আক্রান্তের সংখ্যা। ৫৯ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

অন্যদিকে চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৩ জন। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ হাজার ৯৪০ জন। তবে চীনের বিরুদ্ধে তথ্য লুকানোর অভিযোগও রয়েছে।

মন্তব্য